advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হাতঘড়ি ধরিয়ে দিল হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যা, প্রাণে বাঁচলেন মার্কিন নাগরিক

অনলাইন ডেস্ক
৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১০:৫৬ এএম | আপডেট: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:২২ পিএম
আইফোন ছাড়াও ‘অ্যাপল’ সংস্থার হাতঘড়ি ব্যবহার করেন অনেকেই।
advertisement

সারা বিশ্বের বহু টেক ব্র্যান্ডের মতো আইফোন ছাড়াও ‘অ্যাপল’ সংস্থার হাতঘড়ি ব্যবহার করেন অনেকেই। যা ‘অ্যাপল ওয়াচ’ নামে পরিচিত। নানা সুযোগ-সুবিধার পাশাপাশি এই ধরনের ঘড়ির এমন কিছু বৈশিষ্ট্য আছে, যেগুলি শারীরিক অবস্থার উপর নজর রাখে। সম্প্রতি এই ‘অ্যাপল ওয়াচ’-এর সাহায্যে বড় বিপদ থেকে বেঁচে গেছেন ডেভিড লাস্ট নামের যুক্তরাষ্ট্রের এক নাগরিক।

ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, সম্প্রতি অ্যাপল ওয়াচ’ ধরিয়ে দিল হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যা। আমেরিকায় বসবাসরত ৫৪ বছর বয়সি ডেভিড লাস্টকে গত বছর জন্মদিনে ঘড়িটি উপহার দিয়েছিলেন তার স্ত্রী। এই ঘড়িটি বেশির ভাগ সময় তার কব্জিতে পরা থাকত।

advertisement 3

ডেভিড জানিয়েছেন, এই ঘড়িটি আগে থেকে সতর্কতামূলক বার্তা না দিলে তিনি এতদিনে হয়তো মারা যেতেন।  

advertisement 4

তিনি জানান, সাধারণত হৃদ্‌স্পন্দনের হার ৬০ থেকে ১০০ স্বাভাবিক। কিন্তু অ্যাপলের ঘড়ি অনুযায়ী, তার সেখানে ঘণ্টায় হৃদ্‌স্পন্দনের হার কমে হয়ে গিয়েছিল ৩০।

ঘড়িতে হৃদ্‌স্পন্দনের হার কমে যাওয়ার বিষয়টি জানতে পেরেই তাড়াতাড়ি করে হাসপাতালে পৌঁছান ডেভিড। চিকিৎসকরা ইসিজি এবং আরও অন্যান্য পরীক্ষা করার পর দ্রুত অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ডেভিডের হার্ট অত্যন্ত দুর্বল ছিল। হৃদ্‌স্পন্দনের হার স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকটা কমে গিয়েছিল। অ্যাপল ঘড়ির সতর্কতার কারণে প্রাণ বাঁচানো সম্ভব হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, ‘অ্যাপল’ ঘড়ির প্রাণ বাঁচানোর উদাহরণ এই প্রথম নয়। এর আগেও বহু বার অনেককে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরিয়ে এনেছে এই ঘড়ি।

advertisement