advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সীমান্তে রুশদের দীর্ঘ সারি

আমাদের সময় ডেস্ক
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:১০ পিএম
advertisement

ইউক্রেনে আরও সেনা পাঠানোর লক্ষ্যে রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের রিজার্ভ সেনা তলবের পর এ নিয়ে রুশদের মধ্যে তাড়াহুড়া লক্ষ্য করা

advertisement 3

গেছে। রুশ বাহিনীতে যোগ দিতে গতকালই অনেকে সীমান্তে হাজির হয়েছেন। জর্জিয়া সীমান্তে রীতিমতো দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। খবর বিবিসি।

advertisement 4

প্রেসিডেন্ট পুতিন গত বুধবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে রিজার্ভ সেনা তলব করেছেন। এর আওতায় প্রায় ৩ লাখ সেনা ইউক্রেন পাঠানো হবে। মূলত এ ঘোষণার মধ্য দিয়ে সাবেক সেনাদের যুদ্ধ প্রস্তুতির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় বিশ^যুদ্ধের পর এই প্রথম এমন নির্দেশনা এলো। পুতিন বলেন, যারাই এই যুদ্ধে যোগ দেবে, তারা সবাই সশস্ত্র বাহিনীর মর্যাদা ও সুবিধা পাবে। এমন আহ্বানে সাড়া দিতে বহু রাশিয়ান প্রস্তুত। পুতিন তার ভাষণে, পারমাণবিক হামলার হুমকিও দিয়েছেন। একই সঙ্গে পশ্চিমাদের সতর্ক করে বলেছেন, এটি ‘ঠাট্টা’ নয়। এদিকে পশ্চিমারা পুতিনের এই নতুন সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। খবরে বলা হয়েছে, নতুন সেনা নিয়োগের কাজও ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, জর্জিয়া সীমান্তে গাড়ির লাইন প্রায় কয়েক মাইল দীর্ঘ হয়েছে। একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, প্রায় তিন মাইল দীর্ঘ হয়েছে অপেক্ষারতদের লাইন। জর্জিয়া ছাড়াও প্রতিবেশী দেশগুলোতে যেসব রুশরা রয়েছে তারাও দেশে ফেরার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। এদিকে পুতিনের এমন ঘোষণার পর রাশিয়া থেকে ছাড়া বিমানের টিকিট বিক্রি বেড়ে গেছে বলে।

এদিকে ইউক্রেনে নতুন করে সেনা পাঠানো যুদ্ধ আরও তীব্র হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর খোদ রাশিয়াতেও পুতিনের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ হয়েছে। এক হাজারের বেশি বিক্ষোভকারীকে আটক করেছে পুলিশ। এ ছাড়া সেনা মোতায়েনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভকারীদের সতর্ক করেছে রাশিয়া। গত বুধবার এ বিক্ষোভকে অননুমোদিত আখ্যা দিয়ে, বিক্ষোভে অংশ নিলে ১৫ বছরের জেল হতে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

advertisement