advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

রাজনীতিতে আসছেন কঙ্গনা, ‘খোঁচা’ দিলেন হেমা!

বিনোদন ডেস্ক
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:৪১ এএম | আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:৫১ পিএম
বিজেপি সাংসদ হেমা মালিনী ও বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত।
advertisement

কঙ্গনা রানাওয়াত যেখানে, বিতর্ক সেখানে! অভিনয়ের পাশাপাশি এবার রাজনীতির দুনিয়ায় পা রাখতে চলেছেন মোদিভক্ত কঙ্গনা। সম্প্রতি গোটা বলিউড পাড়ায় এমন গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। শোনা যাচ্ছে, ২০২৪-এ বিজেপির হয়ে মথুরা থেকে নির্বাচনে দাঁড়াবেন কঙ্গনা। এ ব্যাপারে এখনো মুখ খোলেননি অভিনেত্রী নিজে। তবে বিজেপি সাংসদ হেমা মালিনী এ বিষয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার এক খবরে বলা হয়েছে, সম্প্রতি সাংবাদিকদের তরফে কিছু প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় মথুরার বর্তমান সাংসদ হেমা মালিনীকে। উত্তরে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘সেটা তো ঈশ্বরেরই হাতে। ভগবান শ্রীকৃষ্ণ যা চাইবেন তাই হবে।’

advertisement

তিনি আরও বলেন, ‘মথুরা থেকে নির্বাচন লড়ার জন‍্য কোনো রাজনীতিবিদকে পাবেন না। কিন্তু সবার মাথায় এটা ঢুকিয়ে দেওয়া হয় যে শুধু সিনেমার তারকাদেরই নির্বাচনে লড়া উচিত। যেন মথুরা শুধু ফিল্মস্টারদেরই চায়। আগামীকাল রাখি সাওয়ান্তও নির্বাচনে লড়বেন!’ হেমার কথা শুনে হাসির রোল ওঠে তার পেছনে।

advertisement 4

কিন্তু আচমকা হেমার এমন বক্তব‍্য নিয়ে বিতর্কও শুরু হয়েছে নেটপাড়ায়। হেমা নিজে অভিনেত্রী এবং বিজেপি সাংসদ। পাশাপাশি তার স্বামীও রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন, বর্তমানে ধর্মেন্দ্র পুত্র সানিও বিজেপি সাংসদ। তাহলে এমন জবাব কেন? কেউ কেউ তো সাংসদ হিসাবে হেমার অবদান নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন।

কঙ্গনার ছবির থেকে আজকাল তার বিতর্কিত বক্তব্যই বেশি চর্চায় থাকে। চলতি সপ্তাহের শুরুতেই নিজের পরিবারের সঙ্গে বৃন্দাবনে ঘুরে গেছেন কঙ্গনা। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের সৌভাগ্য যে আমরা ভগবান শ্রীকৃষ্ণ এবং রাধে মা-এর দর্শন করতে পারলাম।’

সম্প্রতি ‘এমার্জেন্সি’র শুটিং শেষ করেছেন কঙ্গনা। এই ছবির পরিচালকের আসনেও রয়েছেন অভিনেত্রী। ছবিতে ভারতের একমাত্র নারী প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর চরিত্রে দেখা যাবে কঙ্গনাকে। ‘মণিকর্ণিকা: দ্য ক্যুইন অফ ঝাঁসি’র পর এটি হতে চলেছে কঙ্গনা পরিচালিত দ্বিতীয় ছবি।

advertisement