advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিষ খাইয়ে ২ সন্তানকে হত্যার অভিযোগ বাবার বিরুদ্ধে

দিনাজপুর প্রতিনিধি
২৫ নভেম্বর ২০২২ ১২:০৮ পিএম | আপডেট: ২৫ নভেম্বর ২০২২ ০৬:৫৫ পিএম
দিনাজপুরের বিরল থানা
advertisement

দিনাজপুরের বিরল উপজেলা থেকে দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরিবারের সদস্যদের দাবি, শিশুদের বাবাই তাদের ‘বিষ খাইয়ে’ হত্যা করেছে। আজ শুক্রবার সকালে বিজোড় ইউনিয়নের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত কক্ষ থেকে ওই শিশুদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলো- ইমন (৭) ও ইমরান (৩)। তাদের বাবা সফিকুল ইসলাম (৩৬) বিরলের পৌর এলাকার শংকরপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি পেশায় কৃষিজীবী।

advertisement

শিশুদের দাদা রফিকুল ইসলাম জানান, তার ছেলের স্ত্রী উর্মি বেগম ৫ মাস আগে স্বামী-সন্তান ছেড়ে ঢাকায় চলে যায় এবং সেখানে গার্মেন্টসে চাকরি নেয়। সফিকুল তাকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। আড়াই মাস আগে উর্মি সফিকুলকে তালাকনামা পাঠিয়ে দেন। মা চলে যাওয়ার পর থেকে ইমন ও ইমরান দাদা-দাদীর কাছেই ছিল।

advertisement 4

গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শীতের কাপড় কিনে দেওয়ার কথা বলে দুই সন্তানকে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন সফিকুল। এরপর তারা আর বাড়ি ফিরেননি। রাতে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

রফিকুল ইসলাম আরও জানান, আজ সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সফিকুল ফোনে জানায়, ছেলেদের বিষ খাইয়ে মেরে ফেলেছেন। লাশ ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত কক্ষে রাখা আছে। এ সময় সফিকুল নিজেও বিষ খেয়েছে বলে পরিবারকে জানান। এ ঘটনার পর থেকে সফিকুলকে পাওয়া যায়নি।

দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আসলাম উদ্দিন বলেন, ‘পারিবারিক কলহের জেরে শিশু দুটিকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তবে তদন্ত চলছে। শিশুদের বাবা সফিকুলকে খোঁজা হচ্ছে।’

সুরতহাল শেষে মরদেহ ময়নাতদন্ত করতে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের পর লাশ শিশুদের দাদার কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

advertisement