advertisement
advertisement
advertisement

নাসির-মাশরাফিকে নিয়ে নির্বাচকদের ভাবনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক
২৪ জানুয়ারি ২০২৩ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৪ জানুয়ারি ২০২৩ ১১:৪৮ এএম
মিনহাজুল আবেদীন নান্নু
advertisement

বিপিএলে দারুণ ছন্দে আছেন নাসির হোসেন। ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করছেন এই ফিনিশার! ব্যাটে-বলে প্রতি ম্যাচে আলো ছড়াচ্ছেন ঢাকা ডমিনেটরসের অধিনায়ক। পারফরম্যান্স দিয়ে ইতোমধ্যে নির্বাচকদের নজরে চলে এসেছেন ৩১ বছর বয়সী এ অলরাউন্ডার। গতকাল সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানালেন, নির্বাচক প্যানেলের বিবেচনায় বেশ ভালোভাবেই আছেন নাসির। জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘নাসির অনেক দিন পর কামব্যাক করেছে। ওকে ধারাবাহিকভাবে এ প্রসেসে থাকতে হবে। ও সিলেকশন প্যানেলের বিবেচনায় আছে। নাসির অভিজ্ঞ খেলোয়াড়, অনেক দিন ধরে খেলছে। নিজের ছন্দে থাকলে ওর ক্যারিয়ারের জন্য ভালো হবে।’

শুধু নাসির নন, বিপিএলে বল হাতে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স মাশরাফি বিন মোর্ত্তজারও। সিলেট স্ট্রাইকার্সের অধিনায়ক ৬ ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়েছেন। টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নেওয়া মাশরাফি ২০২০ সালের মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সবশেষ ওয়ানডেতে খেলেছেন। এর পর থেকেই জাতীয় দলে তাকে আর বিবেচনা করা হয়নি। মাশরাফির জন্য বিদায়ী ম্যাচের আয়োজন করার কোনো ভাবনা আছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে নির্বাচক আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘এটি সম্পূর্ণ বোর্ডের সিদ্ধান্ত। যদি বোর্ড এ সিদ্ধান্ত নেয় আমাদের কোনো আপত্তি নেই এ ব্যাপারে। আমরা চাই খেলোয়াড়রা মাঠ থেকে যেন বিদায় নেয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যারা অনেক দিন ধরে খেলেছে, সবার ক্ষেত্রে এমন হলেই ভালো। খেলোয়াড়েরও একটা স্মৃতি থাকবে।’ মিনহাজুল আবেদীন মনে করেন, মাশরাফির কাছ থেকে তরুণদের অনেক কিছুই শেখার আছে। তিনি বলেন, ‘কীভাবে এই বয়সে পারফরম করতে হয়, নিজের ফিটনেস ধরে রাখতে হয়Ñ অনেক কিছুই শেখার আছে। তরুণদের জন্য প্রেরণাদায়ক।’

advertisement

এদিকে ২০২৩ সালের জন্য বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ২১ ক্রিকেটারকে রেখেছে বিসিবি। মিনহাজুল আবেদীন জানালেন, চুক্তিভুক্ত ক্রিকেটারদের বেতন বাড়ছে। তিনি বলেন, ‘খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স অনুযায়ী গ্রেডিং দেওয়া হয়েছে। সব কিছু মিলে ওদের স্যালারিও একটু বেড়েছে। ক্রিকেট অপারেশন্সের একটা সিস্টেম আছে। যে যত বেশি ম্যাচ খেলে তার ওপর পয়েন্ট আছে। সব কিছু মিলিয়ে এটি তৈরি করা হয়েছে।’ চুক্তিতে নতুন মুখ জাকির। তাকে টেস্টের চুক্তিতে রাখা হয়েছে। তবে বাদ পড়েছেন ইয়াসির রাব্বী। মিনহাজুল আবেদীন জানালেন জাকিরকে নিয়ে তারা অনেক বেশি আশাবাদী। তিনি বলেন, ‘প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের চুক্তিতে ৯৩ খেলোয়াড় আছে। ৯০ থেকে ৯৩ জনের নাম এবারও সাবমিট করেছি। যারা কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকে না, তারা ওই চুক্তিতে চলে যায়। জাকিরকে নিয়ে আমরা অনেক আত্মবিশ্বাসী। এ জন্য ওকে নিয়েছি। ইয়াসির ইন অ্যান্ড আউট পারফরম্যান্স। পুরোপুরি স্টেবল না। ক্ষুধাটা থাকুক। তা হলে নিজেকে মেলে ধরতে পারবে। আশা করছি ও কামব্যাক করবে।’

advertisement 4

 

advertisement