advertisement
advertisement
advertisement

ইউক্রেন পশ্চিমাদের কাছে কেন আধুনিক ট্যাঙ্ক চাচ্ছে

অনলাইন ডেস্ক
২৪ জানুয়ারি ২০২৩ ০২:০৮ পিএম | আপডেট: ২৪ জানুয়ারি ২০২৩ ০২:০৮ পিএম
পশ্চিমাদের কাছে কয়েক শত ট্যাঙ্ক চেয়েছে ইউক্রেন
advertisement

গত বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এরপর থেকে আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত টানা ৩৩৫ দিনের মতো চলছে দেশদুইটির সংঘাত। সম্প্রতি মাসগুলোতে ইউক্রেন তার পশ্চিমা মিত্র দেশগুলোর কাছ থেকে আধুনিক ট্যাঙ্ক চাচ্ছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়া ইউক্রেনের যেসব অঞ্চল রাশিয়া দখল করেছে সেগুলো পুনরুদ্ধারের জন্য কিয়েভ পশ্চিমা দেশগুলোর কাছে কয়েক শত আধুনিক ট্যাঙ্ক চাইছে।

advertisement

ইতোমধ্যে ইউক্রেনের এই আহব্বানে সাড়া দিয়েছে ব্রিটেন। দেশটি এ ধরনের ১৪টি ট্যাঙ্ক দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে। তবে আর কোনও দেশের পক্ষ থেকে এখনও এরকম কোনো প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়নি।

advertisement 4

ইউক্রেনের প্রধান যুদ্ধ ট্যাঙ্কের নাম টি-৭২। এসব ট্যাঙ্ক তৈরি হয়েছে ৩০ বছরেরও বেশি সময় আগে এবং ইতোমধ্যেই এগুলো পুরনো হয়ে গেছে।

“ইউক্রেনের অনেক ট্যাঙ্কই সম্ভবত আর ব্যবহারযোগ্য নয়, কারণ রাশিয়ার আক্রমণ শুরু হওয়ার আগে এগুলোকে যথাযথভাবে রক্ষণাবেক্ষণ করা হয়নি,” বলেন কিংস কলেজ লন্ডনের একজন প্রতিরক্ষা গবেষক ড. মারিনা মিরন।

এ কারণে ইউক্রেন পশ্চিমা দেশগুলোর কাছে ৩০০টির মতো আধুনিক ট্যাঙ্ক চেয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে রাশিয়া ইতোমধ্যে যেসব এলাকা দখল করে নিয়েছে, সেগুলো পুনর্দখল করার করার জন্য ইউক্রেন আগামী কয়েক মাসের মধ্যে পশ্চিমা দেশের এসব আধুনিক ট্যাঙ্ক ব্যবহার করতে পারে।

প্রতিরক্ষা বিষয়ক গবেষণা সংস্থা রয়্যাল ইউনাইটেড সার্ভিসেস ইন্সটিটিউটের সিনিয়র গবেষক ড. জ্যাক ওয়াটলিং বলেন, রাশিয়ার প্রতিরক্ষা ব্যূহ ভেঙে দেওয়ার জন্য ইউক্রেনীয় সৈন্যদের আধুনিক ট্যাঙ্ক প্রয়োজন। কারণ রাশিয়ার রয়েছে ভারী ভারী কামান।

যুদ্ধের শুরুতে পশ্চিমা দেশগুলো ইউক্রেনকে যেসব অস্ত্র সরবরাহ করেছে তার মধ্যে রয়েছে শুধুমাত্র ট্যাঙ্ক-বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র। তাদের আশঙ্কা, ট্যাঙ্কের মতো যেসব অস্ত্র দিয়ে আক্রমণ চালানো যায়, ইউক্রেনকে সেসব অস্ত্র দেওয়া হলে রাশিয়া ক্ষুব্ধ হবে এবং তার ফলে যুদ্ধ আরও বেশি ছড়িয়ে পড়তে পারে।

পোল্যান্ড, স্লোভাকিয়া এবং চেক প্রজাতন্ত্র গত বছর ইউক্রেনকে যে ট্যাঙ্ক দিয়েছে সেটি হচ্ছে টি-৭২। এর সংখ্যা প্রায় ২০০।

এখনও পর্যন্ত ব্রিটেনই একমাত্র দেশ যারা ইউক্রেনকে আধুনিক ট্যাঙ্ক দেওয়ার কথা বলেছে। তারা কিয়েভকে ১৪টি চ্যালেঞ্জার ২ ট্যাঙ্ক দেওয়ার অঙ্গীকার করেছে। এই ট্যাঙ্কে এমন কামান রয়েছে যার সাহায্যে নিখুঁতভাবে আক্রমণ চালানো সম্ভব।

advertisement