শেয়ারবাজারে সূচক সাড়ে তিন মাসে সর্বোচ্চ

১২ মে ২০২১ ০১:০৭
আপডেট: ১২ মে ২০২১ ০১:০৭


দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল মঙ্গলবার মূল্যসূচকের বড় ধরনের উত্থানের মধ্য দিয়ে লেনদেন হয়েছে। ডিএসই প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৭৮ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৭২৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে, যা গত সাড়ে তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থান সূচকটির। এর আগে গত ২৮ জানুয়ারি সূচকটি একই অবস্থানে ছিল।
এদিকে ডিএসইতে টাকার অঙ্গে লেনদেনও বেড়েছে বড় ব্যবধানে। অন্য বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে। উভয় শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক, বীমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ বেশিরভাগ কোম্পানির দর বেড়েছে। একই সঙ্গে শেয়ার বিক্রি করে টাকা উত্তোলনের সুযোগ না থাকায় বিনিয়োগকারীদের শেয়ার কেনার আদেশ বেড়েছে।
মঙ্গলবার ডিএসইতে ১ হাজার ৪০৩ কোটি ৩৫ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। ডিএসইতে আগের দিন থেকে ৫১ কোটি ৩১ লাখ টাকা বেশি লেনদেন হয়েছে। রবিবার লেনদেন
হয়েছিল ১ হাজার ৩৫২ কোটি ৩ লাখ টাকার।
এদিন ডিএসই প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৭৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫ হাজার ৭২৪ পয়েন্টে। অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই৩০ সূচক ১০ পয়েন্ট এবং ডিএসইএস বা শরিয়াহ সূচক ২৮ পয়েন্ট বেড়েছে।
মঙ্গলবার ডিএসইতে মোট ৩৬২টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২১৮টির, দর কমেছে ৭১টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৭৩টি কোম্পানির।
অন্য বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ২৩৫ পয়েন্ট। সূচকটি ১৬ হাজার ৫৬৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৫৩ কোটি ৬২ লাখ টাকার শেয়ার। সিএসইতে মোট ২৮৭টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৭৬টির, দর কমেছে ৬৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৬টির।
বারাকা পতেঙ্গার আইপিও আবেদনের তারিখ নির্ধারণ : বুকবিল্ডিং পদ্ধতিতে পুঁজিবাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পাওয়া বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ারের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) আবেদনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। কোম্পানিটির আইপিও আবেদন আগামী ১৩ জুন শুরু হবে। চলবে ১৭ জুন পর্যন্ত।
এর আগে কোম্পানিটির কাট-অফ প্রাইস নির্ধারণে ২২ থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিডিং (নিলাম) অনুষ্ঠিত হয়। বিডিংয়ে কোম্পানিটির কাট-অফ প্রাইস নির্ধারণ করা হয় ৩২ টাকা।
গত ৫ জানুয়ারি শেয়ারবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৭৫৫তম সভায় কোম্পানিটিকে বিডিংয়ের অনুমোদন দেয়।
বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে শেয়ারবাজার থেকে ২২৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে; যা তার সাবসিডিয়ারি কর্ণফুলী পাওয়ার ও বারাকা শিকলবাহা পাওয়ারে বিনিয়োগ, আংশিক দীর্ঘমেয়াদি ঋণ পরিশোধ এবং আইপিওজনিত ব্যয়ে ব্যবহার করা হবে। কোম্পানিটির ২০১৯-২০ অর্থবছরে সমন্বিতভাবে শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ৪ দশমিক ৩৭ টাকা। আর বিগত পাঁচটি আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী ভারিত গড় হারে শেয়ারপ্রতি মুনাফা হয়েছে ৩ দশমিক ৩০ টাকা। ২০২০ সালের ৩০ জুন কোম্পানিটির সমন্বিতভাবে শেয়ারপ্রতি নিট সম্পত্তি মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৩ টাকায়।
শেয়ার বিক্রি করবে ন্যাশনাল হাউজিংয়ের উদ্যোক্তা : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ন্যাশনাল হাউজিংয়ের করপোরেট উদ্যোক্তা শাহ ওয়ালেস বাংলাদেশ লিমিটেড শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
সূত্র জানায়, এই করপোরেট উদ্যোক্তার কাছে কোম্পানির মোট ৫২ লাখ ৮৮ হাজার ৯১০টি শেয়ার আছে। এর মধ্যে থেকে ১০ লাখ শেয়ার বেচবে কোম্পানিটি। শাহ ওয়ালেস বাংলাদেশ আগামী ৩০ কর্মদিবসের মধ্যে ডিএসইর পাবলিক মার্কেটে উল্লিখিত পরিমাণ শেয়ার বেচতে পারবে।