বর্ণবাদ : ম্যাচ শেষ না করেই মাঠ ছাড়ল জার্মানি

স্পোর্টস ডেস্ক
১৮ জুলাই ২০২১ ১১:৪৩ | আপডেট: ১৮ জুলাই ২০২১ ১২:০৫
বর্ণবাদের শিকার হওয়ায় মাঠ ছাড়ে জার্মানির অলিম্পিক দল। সংগৃহীত ছবি

খেলার মাঠে বর্ণবাদের শিকার হওয়ার ঘটনা নতুন নয়। বেশ আগের। এই তো সদ্য শেষ হওয়া ইউরো কাপে ইতালি-ইংল্যান্ড ম্যাচেও বর্ণবাদের শিকার হন পেনাল্টি মিস করা তিন ইংলিশ ফুটবলার। সেটি নিয়ে আলোচনা-সমালোচনাও হয় সামাজিক মাধ্যমে।

এবার বর্ণবাদের ঘটনা দেখা গেল হন্ডুরাস-জার্মানির প্রীতি ম্যাচে। গতকাল শনিবার হন্ডুরাসের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল জার্মানির অলিম্পিক দল। কিন্তু ম্যাচটি শেষ হওয়ার ৫ মিনিট বাকি থাকতে বর্ণবাদের শিকার হওয়ায় মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে গেছে তারা।

জার্মান দলের অভিযোগ, দলের ২৩ বছর বয়সী ডিফেন্ডার জর্ডান তুনারিগা বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন। তবে ওয়াকাইয়ামার দর্শকশূন্য মাঠে পুরো বিষয়টিকে ভুল বোঝাবুঝি হিসেবে দেখছে হন্ডুরাস জাতীয় ফুটবল দল। ম্যাচের ৫ মিনিট বাকি থাকতেই খেলা বন্ধ হওয়ার সময় স্কোরলাইন ছিল ১-১। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অমিমাংসিত রেখেই মাঠ ছেড়েছে দুই দল।

এ ঘটনার ব্যাপারে জানিয়ে জার্মান ফুটবল দলের অফিসিয়াল টুইটার প্রোফাইলে লেখা হয়েছে, ‘১-১ স্কোরলাইনে নির্ধারিত সময় শেষের পাঁচ মিনিট আগে ম্যাচ শেষ হয়েছে। জর্ডান তুনারিগা বর্ণবাদের শিকার হওয়ার পর জার্মানির খেলোয়াড়রা মাঠ ত্যাগ করে।’

জার্মান দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, হন্ডুরাসের কোনো খেলোয়াড় সেই বর্ণবাদী মন্তব্য করেছেন। এ বিষয়ে দলের কোচ স্টেফান কুঞ্জ বলেছেন, ‘আমাদের একজন খেলোয়াড় বর্ণবাদের শিকার হওয়ার পর খেলা চালিয়ে যাওয়ার কোনো মানে নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘মাঠের খেলার কথা বললে, দুই দলই উচ্চমানের খেলা উপহার দিয়েছে। কিন্তু ম্যাচের শেষদিকে আমি ভাবছিলাম, জর্ডানের সঙ্গে কী হলো? কয়েক মিনিট বাকি থাকতে একটা বাদানুবাদের মতো দেখা দেয়। আমি তখন জর্ডানকে খুবই হতাশ দেখতে পাই। কারণ, তাকে দ্বিতীয়বারের মতো বর্ণবাদী মন্তব্য শুনতে হলো।’ তবে কিছুক্ষণ পরেই হন্ডুরাসের সব খেলোয়াড় এসে জর্ডানের কাছে দুঃখপ্রকাশ করেছেন বলে জানিয়েছেন কুঞ্জ।

এ বিষয়ে দেওয়া আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে হন্ডুরাস দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ম্যাচটি ৮৭ মিনিটে বন্ধ হয়ে গেছে। কারণ, জার্মানির এক খেলোয়াড় বর্ণবাদী মন্তব্যের অভিযোগ করেছেন। পুরো বিষয়টি মাঠের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হিসেবে দেখছে হন্ডুরাস ফুটবল দল।