advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

আড়াই হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ৮ প্রকল্পের প্রস্তাব অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ নভেম্বর ২০১৯ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৮ নভেম্বর ২০১৯ ০১:১৯ এএম
advertisement

আন্তর্জাতিক কোটেশনের মাধ্যমে ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৫০ হাজার টন গম আমদানির প্রস্তাবসহ আট ক্রয়প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এতে মোট ব্যয় হবে ২৪৫৬ কোটি ৪৮ লাখ টাকা।

গতকাল রবিবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলনকক্ষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ক্রয়সংক্রান্ত মন্তিসভা কমিটি এ অনুমোদন দেয়। বৈঠক শেষে অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরে কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, সিঙ্গাপুরভিত্তিক মেসার্স সুইস সিঙ্গাপুর ওভারসিস প্রাইভেট লিমিটেডের কাছ থেকে প্রতিটন ২৬৮ দশমিক ১৪ ডলার দরে আমদানি করা হবে ৫০ হাজার টন গম, এতে বাংলাদেশি মুদ্রায় ১১৩ কোটি ৬২ লাখ ৪৩ হাজার টাকা ব্যয় হবে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের তিনটি প্রস্তাব ছিল তা অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এর মধ্যে বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কে পায়রা নদীর ওপর ১৪৭০ মিটার দৈর্ঘ্যরে পায়রা সেতু (লেবুখালী সেতু) নির্মাণ প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। প্রকল্পে ব্যয় হবে ১১৭০ কোটি ৬ লাখ ৫৫ হাজার টাকা।

এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ‘নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জাপানি অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প’-এর আওতায় পরামর্শক ফার্মের সঙ্গে সম্পাদিত চুক্তি স্বাক্ষরের একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। প্রকল্পটিতে ব্যয় হবে ১৭২ কোটি ১৭ লাখ টাকা। জাপানের নিপ্পন কোই এই প্রকল্পের পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ‘লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট (২য় সংশোধিত)’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় প্রফেশনাল আউটসোর্সিং ট্রেনিং অ্যান্ড এমপ্লমেন্ট সার্ভিসেস ফর আইটি/আটিইএস ইন্ডাস্ট্রিসংক্রান্ত সেবা ক্রয়ের বিভিন্ন প্যাকেজের আওতায় ১৫টি লটে ১৫টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ১০৯ কোটি ৯৫ লাখ ৫১ হাজার টাকার চুক্তি স্বাক্ষরের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়। এ জন্য ব্যয় হবে ১০৯ কোটি ৯৫ লাখ ৫১ হাজার টাকা।

‘চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় মহানন্দা নদী ড্রেজিং ও রাবার ড্যাম (১ম সংশোধিত) শীর্ষক প্রকল্পের একটি প্যাকেজের দরপত্রের ক্রয়প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পের ১৪৬ কোটি ১০ লাখ ৩০ হাজার টাকার একটি দরপত্র বাতিল করে পুনঃদরপত্র আহ্বানের প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। যে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান সর্বনিম্ন দরদাতা হয়, তাদের এ ধরনের কাজে কারিগরি দক্ষতা না থাকায় দরপত্রটি বাতিল করা হয়।

advertisement