advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

এলডিপি ভাঙছে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৮ নভেম্বর ২০১৯ ০১:৫৩
advertisement

বিএনপির সাবেক নেতা ও লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (এলডিপি) প্রেসিডেন্ট (অব) কর্নেল অলি আহমেদের দল আনুষ্ঠানিকভাবে ভাঙছে আজ সোমবার। জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা আকরম খাঁ হলে এলডিপির ব্যানারে ‘সাম্প্রতিক প্রেক্ষাপট নিয়ে’ এক সংবাদ সম্মেলনের মধ্য দিয়ে দলটির ভাঙন চূড়ান্ত হচ্ছে।

সোমবার (আজ) সকালে এ সংবাদ সম্মেলন হবে বলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখবেন এলডিপির সাবেক সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম।

গত ৯ নভেম্বর ২০৩ সদস্যবিশিষ্ট দলের জাতীয় নির্বাহী কমিটির তালিকা প্রকাশ করে লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এলডিপি)। গত ৭ মাস ধরে দলের কোনো কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত না থাকার অভিযোগে দলটির ঘোষিত এই কমিটিতে সাবেক সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিমকে রাখা হয়নি। এ কারণে শাহাদাত হোসেন সেলিমসহ এলডিপির বেশ কয়েক নেতা খুব শিগগির বিএনপিতে যোগ দেবেন বলে রাজনৈতিক অঙ্গনে গুঞ্জন রয়েছে। সেলিম দল থেকে বের হয়ে গেলে এলডিপি ভাঙনের মুখে পড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন দলটির নেতাকর্মীরা। তবে শাহাদাত হোসেন সেলিমকে দলে কোনো পদে না রাখলেও এলডিপি থেকে বহিষ্কার করা হয়নি।

গত ৯ নভেম্বর এলডিপি সভাপতি অলি আহমেদের স্বাক্ষরে দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক সালাহ উদ্দিন রাজ্জাক স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কমিটি গঠনের বিষয় জানানো হয়। এলডিপির মহাসচিব হয়েছেন রেদোয়ান আহমেদ। ১৭ সভাপতিম-লী, ২১ সহসভাপতি, ২১ উপদেষ্টাম-লী, ৭ যুগ্ম মহাসচিব, কোষাধ্যক্ষ, সম্পাদক, সহ-সম্পাদকসহ ১২৬ নির্বাহী সদস্যের নামও প্রকাশ করা হয় ওই তালিকায়।

সেলিমকে পদে না রাখার বিষয়ে এলডিপির মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদ বলেন, ছয় থেকে সাত মাস ধরে শাহাদাত হোসেন সেলিম দলের কোনো কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন না। সাধারণ সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছিলÑ যারা দলের সাঙ্গে এবং দলের কাজে সম্পৃক্ত নেই তাদের পদে রাখা হবে না। আর এলডিপি সভাপতি অলি আহমেদকে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য সভা দায়িত্ব দিয়েছিল। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনিই।

সেলিম গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লক্ষীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসন থেকে এলডিপির প্রার্থী হয়ে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করেন। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে রেদোয়ান আহমেদ বলেন, আমরা সেলিমকে কোনো পদে রাখিনি; কিন্তু তাকে তো দল থেকে বহিষ্কার করা হয়নি। তিনি এখনো এলডিপির সদস্য।

শাহাদাত হোসেন সেলিমের বিএনপিতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে রেদোয়ান বলেন, এ ব্যাপারে আমি কিছু জানি না।

জানতে চাইলে শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেন, আমি রাজনীতি থেকে দূরে সরে যাচ্ছি না। আমার অবস্থান অবশ্যই জাতীয়তাবাদী শক্তির পক্ষে হবে।

advertisement