advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

চাঁপাইয়ে ৪৪ একর জমিতে পর্যটনকেন্দ্রের কাজ শুরু

ডাবলু কুমার ঘোষ চাঁপাইনবাবগঞ্জ
১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:৫৯
advertisement

প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুত চাঁপাইনবাবগঞ্জে শেখ হাসিনা সেতুসংলগ্ন এলাকায় ৪৪ একর জমিতে গড়ে উঠছে পর্যটনকেন্দ্র। মুসলিম স্থাপত্যশিল্পে সমৃদ্ধ প্রাচীন গৌড় রাজ্যের রাজধানী এ জেলায় পর্যটনশিল্পের বিকাশে এই পর্যটনকেন্দ্র ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

শেখ হাসিনা সেতু সংলগ্ন এলাকায় পর্যটনকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের প্রাথমিক পর্যায়ে মাটির পরীক্ষা কাজ শুরু হয়েছে। পরে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ ও বালুভরাটের কাজ করা হবে। এ দুটি কাজ শেষ হতে ৬ মাসের মতো লাগবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। এর পরই মূল পর্যটনকেন্দ্রের নির্মাণকাজ শুরু করা হবে।

সদর উপজেলার চুনাখালী ও নিমগাছি মৌজার ৪৪ দশমিক ৫১ একর খাসজমিতে গড়ে উঠবে পর্যটনকেন্দ্র। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সহযোগিতা ও গণপূর্ত বিভাগ চাঁপাইনবাবগঞ্জের তত্ত্বাবধানে প্রায় ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে পর্যটনকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন।

প্রকল্প তদারকির দায়িত্বে থাকা গণপূর্ত বিভাগ চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. জাহিদ হাসান জানান, পর্যটনকেন্দ্র গড়ে তোলার কাজ শুরু হয়েছে। পর্যটন মন্ত্রণালয় এ জন্য ৪০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। তিনি জানানÑ এখানে পাঁচতারা হোটেল, টেনিস মাঠ, পার্ক, পর্যবেক্ষণ টাওয়ার, জাদুঘর ও সুইমিংপুলসহ অন্যান্য স্থাপনা নির্মাণ করা হবে। এতে জেলার অর্থনীতিতে সূচিত হবে পর্যটনের নতুন দ্বিগন্ত।

সেতু এলাকায় ঘুরতে আসা মুর্শিদা খাতুন রিমা বলেন, এ শহরে কোনো পার্ক বা বিনোদনকেন্দ্র গড়ে না ওঠায় ক্ষণিকের জন্য শেখ হাসিনা সেতু এলাকায় প্রকৃতির মধ্যে স্বস্তি ফিরে পেতেই বেড়াতে আসা। পর্যটনকেন্দ্র গড়ে ওঠার কথা শুনে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানান তিনি।

স্থানীয় বাসিন্দা দুরুল হুদা বলেন, স্থানীয় যুবকরা এ কাজে সংশ্লিষ্ট হয়ে বেকারত্ব ঘোচাতে পারবে বলে আশা করছি।

advertisement