advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

টেক্সাসে হত্যা-আত্মহত্যার শিকার পরিবারের দাফন আজ

কামরুজ্জামান হেলাল,যুক্তরাষ্ট্র
৮ এপ্রিল ২০২১ ০৯:৩১ এএম | আপডেট: ৮ এপ্রিল ২০২১ ০৯:৩১ এএম
advertisement

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যে হত্যা-আত্মহত্যার শিকার পরিবারটি দাফন করা হবে। অঙ্গরাজ্যের অ্যালেন শহরে বাংলাদেশি এ পরিবারটির মর্মান্তিক ঘটনা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান প্রধান সংবাদমাধ্যমগুলো প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেখান থেকেই আজ বৃহস্পতিবার মৃতদের দাফন হতে পারে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় সময় গত রোববার রাতে অ্যালেন শহরে বসবাসরত বাংলাদেশি পরিবারটির সব সদস্যের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এটি ছিল পরিকল্পিত একটি হত্যাকাণ্ড। আপন দুই ভাই পরিবারের অন্য চার সমস্যাকে খুনের পর নিজেরা আত্ম্যহত্য করে। হত্যার শিকার ব্যক্তিরা হলেন- তৌহিদুল ইসলাম (৫৪), মা আইরিন ইসলাম (৫৬), তৌহিদুলের মা আলতাফুন্নেসা (৭৭) ও মেয়ে ফারবিন তৌহিদ (১৯)। আত্মহত্যাকারীরা হল- বড় ভাই তানভীর তৌহিদ (২২) ও ফারহান তৌহিদ (১৯)। ফারহান ও ফারবিন জমজ ভাইবোন ছিল।

হত্যার পর আত্মহত্যার কথা বললেও টেক্সাস পুলিশ এখনও বিস্তারিত তদন্ত করছে। এর মধ্যে গত মঙ্গলবার ছয়জনের মধ্যে দুজনের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে অ্যালেন নগরীর পুলিশ। বাকি চারজনের মরদেহ সব প্রক্রিয়া শেষ করে গতকাল বুধবার হস্তান্তর করার কথা ছিল।

বাংলাদেশি অ্যাসোসিয়েশন অব নর্থ টেক্সাস ছয়জনের লাশ দাফনের ব্যবস্থা করছে। অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট হাশমত মোবীন জানিয়েছেন, নিহত তৌহিদুল ইসলামের ভাই ও আইরিন ইসলামের ভাই টেক্সাসে এসেছেন। পরিস্থিতি বিবেচনায় জানাজা ও দাফনের সময়ে পরিবর্তন আনা হয়েছে। পরিবর্তিত সময়সূচি অনুযায়ী, অ্যালেন শহরের যে মসজিদে পরিবারটির সদস্যরা যেতেন, সেখানেই তাদের জানাজা হবে। আজ বৃহস্পতিবার জোহরের নামাজের পর ছয়জনের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। জানাজা শেষে পার্শ্ববর্তী ডেন্টন শহরের মুসলিম কবরস্থানে তাদের দাফন করা হবে।

হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে নিউইর্য়কে বসবাসরত অধ্যাপক মনোবিদ ড. রাজুব ভৌমিক দৈনিক আমাদের সময়কে জানান, এই জাতীয় হত্যাকাণ্ডের ক্ষেত্রে সুইসাইড বা মার্ডারের কারণ হলো- ঘরোয়া সহিংসতা, নির্যাতন, হতাশা, ভীষণ একাকীত্ববোধ, আত্ম-নিয়ন্ত্রণে দূর্বলতা। সাধারণত খুন বা আত্মহত্যা করার ইচ্ছা কোনো ব্যক্তি প্রথমে তাদের পরিবারের সদস্য, কাছের বন্ধুদের জানায়, তখন তাদের এই বিষয় বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া উচিত বলে মনে করেন তিনি।

advertisement
advertisement