advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

সেরাম ভ্যাকসিন দিতে না পারলে অর্থ ফেরত পাব : অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
৬ মে ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৬ মে ২০২১ ০১:১৪
advertisement

আন্তর্জাতিক নিয়ম অনুযায়ী ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট যদি চুক্তি মোতাবেক প্রতিশ্রুত ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে না পারে, তা হলে অগ্রিম দেওয়া অর্থ ফেরত পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। গতকাল বুধবার সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভার পর ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘যখন চূড়ান্তভাবে জানা যাবে যে ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে না, তখন অগ্রিম যে অর্থ দেওয়া হয়েছে, তা আমরা অবশ্যই ফেরত পাব। এভাবে এক দেশ আরেক দেশের টাকা মেরে দেয় নাকি? লিখিত চুক্তির ভিত্তিতে সব কিছু হয়েছে।’

তিনি বলেন, তবে ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে না, তা বলার সময় এখন

আসেনি। তাদের সঙ্গে আলোচনা এখনো চলছে। একই সঙ্গে বিকল্প উৎস থেকে ভ্যাকসিন আমদানির উদ্যোগ চলছে। সরকার একটি সোর্সের ওপর নির্ভর করে বসে নেই। এটি একটি সেনসেটিভ ইস্যু।

সেরামের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করা হবে কিনা জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আন্তর্জাতিক নিয়ম অনুযায়ী একটি চুক্তিতে যা থাকা দরকার, সবই সেরামের সঙ্গে করা চুক্তিতে আছে।’ এ বিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগের পরামর্শ দেন।

বাংলাদেশের সরকার গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের তিন কোটি ডোজ কেনার জন্য সেরামের সঙ্গে চুক্তি সই করে। ভ্যাকসিন পেতে সেরামকে প্রায় ১ হাজার ৩০০ কোটি টাকা অগ্রিম পরিশোধ করা হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী, বাংলাদেশের প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এ পর্যন্ত দুই কিস্তিতে মাত্র ৭০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পাওয়া গেছে। এ ছাড়া ভারত সরকার উপহার হিসেবে ৩৩ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন পাঠিয়েছিল।

ভারতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এবং ভ্যাকসিনের ঘাটতি থাকায় দেশটির সরকার নিজস্ব চাহিদা মেটাতে দেড় মাস আগে ভ্যাকসিন রপ্তানি স্থগিত করে।

advertisement