advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ভারতে দিনে মৃত্যু ৪ হাজার ছাড়াল

অক্সিজেন সংকট মেটাতে টাস্কফোর্স গঠন ॥ চিকিৎসায় দেশি ওষুধের অনুমোদন

আমাদের সময় ডেস্ক
৯ মে ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৮ মে ২০২১ ২৩:৫১
advertisement

ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একদিনে প্রাণহানির সংখ্যা চার হাজার ছাড়িয়েছে। দেশটির সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, শুক্র ও শনিবারের মধ্যে ২৪ ঘণ্টায় মোট চার হাজার ১৮৭ করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

একই সময় দেশটিতে নতুন করে চার লাখ এক হাজার লোক করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে এক সপ্তাহে চারবার দৈনিক শনাক্ত চার লাখের বেশি হলো।

করোনা আক্রান্ত হওয়ার দিক থেকে ভারত বিশ্বে দ্বিতীয়। তবে মৃতের দিক থেকে তৃতীয়। ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ভারতে ২২ কোটি ৬০ হাজার ৯৬০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৮ কোটি ৬৫ হাজার ৯৫ জন আরোগ্য লাভ করেছে। মোট মারা গেছে ২ লাখ ৩৯ হাজার ৬৬০ জন। গত শুক্রবার ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়, জোরালো পদক্ষেপ নিলে সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউ এড়ানো যেতে পারে।

দেশটির প্রভাবশালী বাংলা গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, করোনা মহামারীতে অক্সিজেন সংকট মেটাতে টাস্কফোর্স গঠন করেছেন দেশটির সর্বোচ্চ আদালত।

অন্যদিকে এনডিটিভি জানিয়েছে, করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অরগানাইজেশনের উদ্ভাবিত ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে

ভারতের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিসিজিআই। এই ওষুধের নাম দেওয়া হয়েছে ২-ডিঅক্সি-ডি-গ্লুকোজ, যা খেতে হবে পানিতে মিশিয়ে।

পরবর্তী ঢেউয়ে শিশুদেরই সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হতে পারে বলে ধারণা করছেন মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে। ভারতের মধ্যে সবচেয়ে বেশি শনাক্ত রোগী ও মৃত্যু দেখা পশ্চিমাঞ্চলীয় এ রাজ্যটি এখন শিশুদের জন্য কোভিডকেন্দ্র বানানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে। শিশুদের জন্য কোভিডের কোনো ভ্যাকসিন ভারতের কাছে নেই।

সংক্রমণের চেইন ভাঙতে গত কয়েকদিনে দেশটির অনেকগুলো রাজ্যকে লকডাউন, কারফিউর মতো বিধিনিষেধ দিতে দেখা গেছে। তামিলনাড়ু, কর্নাটক ও মনিপুরও এখন এ তালিকায় যুক্ত হয়েছে।

advertisement