advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ঝড়ে পদ্মায় পড়ে যাওয়া মাইক্রোবাস ২ ঘণ্টা পর উদ্ধার

রাজবাড়ী প্রতিনিধি
১২ মে ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ১১ মে ২০২১ ২২:৪৭
advertisement

কালবৈশাখীতে গতকাল রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাটের পন্টুন থেকে পদ্মায় পড়ে যাওয়া মাইক্রোবাসটি দুই ঘণ্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে। বেলা ১১টার দিকে নদীতে পড়ে যাওয়া মাইক্রোবাসটি বেলা দেড়টার দিকে উদ্ধার করা হয়। তবে মাইক্রোবাসের ভেতরে কাউকে পাওয়া যায়নি। গতকাল বিকাল ৬টা পর্যন্ত সন্ধান মেলেনি চালকের। সূত্র জানায়, দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ফেরিঘাটের তার ছিঁড়ে পন্টুন নদীতে চলে যায়। এ সময় ফেরিতে ওঠার অপেক্ষায় পন্টুনে দাঁড়িয়ে থাকা যশোর থেকে ঢাকাগামী একটি মাইক্রোবাস নদীতে চলে যায়। মাইক্রোবাসের সন্ধানে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধারকাজ শুরু করে। দেড়টার দিকে মাইক্রোবাসটি নদী থেকে উদ্ধার করা হয়। ফায়ার সার্ভিস ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মাইক্রোবাসের ভেতরে কাউকে পাওয়া যায়নি।

তবে চালকের পাশের দরজার কাচ খোলা পাওয়া গেছে। এই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে দৌলতদিয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক আবদুল মোন্নাফ আলী বলেন, বেলা সোয়া ১১টার দিকে দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ঘাটে ভেড়ানো ইউটিলিটি (ছোট) ফেরি মাধবীলতায় ঢাকাগামী মাইক্রোবাসটি উঠতে যায়। এ সময় কালবৈশাখী শুরু হলে ঘাট থেকে পন্টুনের ডান পাশের তার ছিঁড়ে যায়। একই সঙ্গে পন্টুনের বাম পাশের খুঁটি ভেঙে পন্টুনটি চলে যায় পদ্মা নদীতে। এ সময় মাইক্রোবাসটি ফেরিতে ওঠার চেষ্টা করছিল। কিন্তু তার আগেই মাইক্রোবাসটি পেছনের দিকে গেলে সঙ্গে সঙ্গে পন্টুন থেকে সেটি নদীতে পড়ে যায়।

পুলিশ পরিদর্শক মোন্নাফ আলী আরও বলেন, মাইক্রোবাসটিতে চালকের সঙ্গে আর কেউ ছিলেন কিনা, তা-ও জানা যায়নি। দুপুর ১২টার পর থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা উদ্ধারকাজ শুরু করেন। দেড়টার দিকে মাইক্রোবাসটি উদ্ধার করা হয়।

গোয়ালন্দ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আজিজুল হক জানান, উপজেলা পরিষদের আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক মিটিং চলাকালীন দুর্ঘটনার সংবাদ পাই। সভা স্থগিত করে দ্রুত দৌলতদিয়া ৫ নং ফেরিঘাটে পৌঁছানোর পর ফায়ার সার্ভিস-এর লোকজনের সঙ্গে কথা বলে দ্রুত মাইক্রোবাসটি উদ্ধারের ব্যবস্থা করা হয়।

advertisement