advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বগুড়ায় ধর্ষণের শিকার মাদ্রাসার ছাত্রী
ফুলবাড়ীতে ধর্ষণমামলায় মাদ্রাসার শিক্ষক গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া ও ফুলবাড়ী প্রতিনিধি
২৪ জুলাই ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৩ জুলাই ২০২১ ১১:১০ পিএম
advertisement

বগুড়ার শিবগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে একই প্রতিষ্ঠানের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। এ ছাড়া ওই শিক্ষকের অনুগত কয়েক ছাত্র জানালা দিয়ে ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও করেছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এদিকে, ফুলবাড়ীতে আলহুদা বালিকা কওমি মাদ্রাসার নারী হাফেজকে (১৭) বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটির মোহতামিম আল আমিন বিন আমজাদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত ২১ জুলাই রাত সাড়ে ১২টায় ওই ছাত্রী ফুলবাড়ী থানায় আল আমিনসহ দুজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। ২২ জুলাই রাতে আল আমিনকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম জানান, মামলা দায়েরের পর ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু হয়েছে। ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া ভিডিও ধারনের বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রমাণ পেলে তাদের বিরুদ্ধেও আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা গেছে, অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে (১৪) ঈদের দিন দুপুরে শিক্ষক রাফিউল ইসলাম (২৫) কৌশলে মাদ্রাসায় নিয়ে ধর্ষণ করেন। এ সময় শিক্ষকের অনুগত কয়েক ছাত্র জানালা দিয়ে ভিডিওচিত্র ধারণ করে। রাফিউল চকভোলা খাঁ ফোরকানিয়া ছিদ্দিকিয়া কওমি মাদ্রাসার শিক্ষক ও একই এলাকার আজাহার আলীর ছেলে। বিষয়টি জানাজানির পর ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার শিবগঞ্জ থানায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আশ্রাফুল ইসলাম বলেন, আসামি আল আমিন বিন আমজাদকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অপর আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

advertisement