advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পর করোনায় স্বাস্থ্যকেন্দ্রের কর্মীর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৪ জুলাই ২০২১ ০১:১৯ এএম | আপডেট: ২৪ জুলাই ২০২১ ০৮:৪২ এএম
পুরোনো ছবি
advertisement

দুই ডোজ টিকা নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হয়ে লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। করোনার টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের পর লক্ষ্মীপুরে এটিই প্রথম মৃত্যুর ঘটনা।

মারা যাওয়া ব্যক্তির নাম সিরাজ মিয়া (৫২)। তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার ফুসফুসে তীব্র সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লে ঢাকার উত্তর সিটি করপোরেশনের কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, সিরাজ মিয়া ১০ জুলাই জ্বরে আক্রান্ত হন। অসুস্থ হওয়ার পাঁচ দিন পর ১৬ জুলাই তার নমুনা পরীক্ষা করানো হলে করোনার নেগেটিভ আসে। শ্বাসকষ্ট থাকায় ওই দিনই সিটি স্ক্যান করানো হয় তার। এতে তার ফুসফুসে সংক্রমণ ধরা পড়ে। ওই দিনই অসুস্থ সিরাজ মিয়াকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর তার অক্সিজেন স্যাচুরেশন দ্রুত কমতে থাকে। অবস্থার অবনতি হলে গত শনিবার তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। কয়েক দিন ধরে তিনি ওই হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন।

কমলনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. আবু তাহের বলেন, ‘সিরাজ মিয়া অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত টিকার প্রথম ডোজ নেন চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি। এরপর ৮ এপ্রিল তিনি টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেন। এ ছাড়া তিনি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ছিলেন। তবে তা নিয়ন্ত্রণে ছিল। অন্য কোনো জটিল রোগে আক্রান্ত ছিলেন না তিনি।’

আবু তাহের আরও বলেন, ‘পরীক্ষার পর করোনা নেগেটিভ এলেও সিটি স্ক্যান রিপোর্ট দেখে তার করোনা হয়েছে বলে আমরা নিশ্চিত হই। তার ফুসফুস ৯০ শতাংশ সংক্রমিত ছিল।’

লক্ষ্মীপুর সিভিল সার্জন আবদুল গাফফার বলেন, ‘লক্ষ্মীপুর স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে জড়িত সবাই টিকার দ্বিতীয় ডোজ সম্পন্ন করেছেন। এর মধ্যে সিরাজ মিয়া মারা যাওয়ার ঘটনা নতুন করে চিন্তায় ফেলে দিয়েছে আমাদের।’

advertisement