advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

সকালেই করোনা ও উপসর্গে যত মৃত্যুর খবর এলো

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৭ জুলাই ২০২১ ১০:৩৫ এএম | আপডেট: ২৭ জুলাই ২০২১ ০৪:৩০ পিএম
পুরোনো ছবি
advertisement

দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে প্রতিদিনই মৃত্যুর তালিকা দীর্ঘ হচ্ছে। আক্রান্তের সংখ্যাও বেড়েই চলেছে। আজ রোববার সকালে সরকার ঘোষিত ১৪ দিনের ‘কঠোরতম বিধিনিষেধের’ চতুর্থ দিনের প্রথম প্রহরে দেশের বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১১৮ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

ময়মনসিংহ

গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরও ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ফোকালপারসন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ১৯ জনের মধ্যে ৫ জন করোনায় ও ১৪ জন উপসর্গে মারা গেছেন।

কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত আরও ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও চার জন।

একই সময়ে ৬৭৫টি নমুনা পরীক্ষায় ২৫৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৭ দশমিক ৪৮ শতাংশ।

গতকাল সোমবার সকাল ৮টা থেকে আজ সকাল ৮টা পর্যন্ত এই মৃত্যু ও শনাক্ত হয়। এ সময়ে জেলায় সুস্থ হয়েছেন ২৩৫ জন।

করোনা ডেডিকেটেড কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আশরাফুল ইসলাম এ তথ্য জানান। তিনি জানান, করোনায় মারা যাওয়া সবাই কুষ্টিয়া স্বাস্থ্য বিভাগের অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

আরএমও আশরাফুল ইসলাম আরও জানান, মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের ২০০ শয্যার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ১৯৯ জন এবং জেলায় হোম আইসোলেশনে আছেন তিন হাজার ৪৩০ জন।

কুষ্টিয়ায় এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৬৭৫ এবং মারা গেছেন ৫০৮ জন।

রাজশাহী

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গেল ২৪ ঘণ্টায় আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল ৮টা থেকে আজ মঙ্গলবার সকাল ৮টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, মৃতদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১০ জন ও উপসর্গে ১১ জন মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে মারা যাওয়া ২১ জনের মধ্যে রাজশাহীর ৭, পাবনার ৫, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ১, নাটোর ৩, নওগাঁ ৪ ও ঝিনাইদহের একজন করে আছেন।

চাঁদপুর

চাঁদপুরে করোনা সংক্রমণ ও উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘন্টায় ছয়জন মারা গেছেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে মারা গেছেন চারজন এবং শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দুইজন। চাঁদপুরে একদিনে সর্বোচ্চ ২২৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

খুলনা

খুলনায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা

চুয়াডাঙ্গায় করোনা ও করোনা উপসর্গে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ঠাকুরগাঁও

ঠাকুরগাঁওয়ে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

পঞ্চগড়

পঞ্চগড়ে করোনা ও করোনার উপসর্গ নিয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চট্টগ্রাম

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৯১৫ জনে। একই সময়ের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৩১০ জনের। এটিই চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ শনাক্ত। এর মধ্য দিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৭৭ হাজার ৫২১ জনে।

আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি এ তথ্য জনিয়েছেন।

তিনি জানান, সোমবার চট্টগ্রামের বিভিন্ন ল্যাবে তিন হাজার ৩৮৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৩১০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এদের মধ্যে নগরের ৮৩৩ ও উপজেলার ৪৭৭ জন।

কুমিল্লা

কুমিল্লায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু কমলেও শনাক্ত বেড়েছে। একদিনে সর্বোচ্চ ৮৩৬ জন শনাক্ত হয়েছে। একই সময়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোবারক হোসেন জানিয়েছেন, নতুন ৮৩৬ জন নিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা ২৪ হাজার ৬৬৫ জনে দাঁড়িয়েছে। মোট সুস্থ হয়েছেন ১৪ হাজার ৭৭২ জন।

জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে ছয়জন পুরুষ এবং চারজন নারী। তাদের বয়স ৩৫ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে। জেলায় এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৬৭২ জনে পৌঁছেছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে গতকাল সোমবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য মতে, সারা দেশে একদিনে ২৪৭ জনের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যু দাঁড়ায় ১৯ হাজার ৫২১ জনে।

ওইদিন গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয় ১৫ হাজার ১৯২ জন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ায় ১১ লাখ ৭৯ হাজার ৮২৭ জনে।

advertisement