advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ছাত্রলীগনেতার কব্জি কাটার মামলায় গ্রেপ্তার ৩

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা
৩১ জুলাই ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ৩০ জুলাই ২০২১ ১১:০৫ পিএম
advertisement

কলাপাড়া উপজেলার মিঠাগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলামের ডান হাতের কব্জি কেটে আলাদা করে দেওয়া ও কুপিয়ে মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমের ঘটনায় ১৭ জনের নামে মামলা হয়েছে। এ ছাড়া আরও সাত-আটজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে। রাকিবুল ইসলামের মা রাহিমা বেগম বৃহস্পতিবার রাতে কলাপাড়া থানায় মামলাটি করেছেন। পুলিশ এজাহারভুক্ত আসামি নোমান হাওলাদার, খলিল হাওলাদার ও নয়ন বয়াতীকে গ্রেপ্তার করেছে। মামলায় ছাত্রলীগের মিঠাগঞ্জ ইউনিয়ন শাখার সদ্য বহিষ্কৃত সভাপতি তরিকুল ইসলামকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। অন্য আসামিদের মধ্যে সংগঠনের কর্মী ও স্থানীয় বাসিন্দা রয়েছেন।

সংগঠনের শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যকলাপে জড়িত থাকায় ২৯ জুলাই রাতে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ তরিকুল ইসলামকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করেছে। সংগঠনটির সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ কথা জানানো হয়েছে।

গত বুধবার রাত সাড়ে ৯টার সময় উপজেলার মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের আজিমুদ্দিন গ্রামের জামে মসজিদসংলগ্ন কালভার্ট এলাকায় রাকিবুলের ডান হাতের কব্জি কেটে নেয় সন্ত্রাসীরা। রাকিবুলের পরিবারের সদস্যরা এ ঘটনার জন্য একই ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সাইফুল ইসলাম ওরফে রায়হানকে দায়ী করেছেন। রাকিবুল ইসলামকে ঢাকার জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু) ভর্তি করা হয়েছে। কলাপাড়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ইতোমধ্যে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

advertisement