advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

কাঁচা রাস্তায় কষ্টে নাগরপুরের দুই গ্রামবাসী

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি
২ আগস্ট ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১ আগস্ট ২০২১ ১০:৩০ পিএম
advertisement

নাগরপুর উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের সারোটিয়া গাজী ও পাছআরড়া গ্রামের মানুষের উপজেলা সদরের সঙ্গে যোগাযোগের সরাসরি রাস্তা নেই। নামমাত্র ধুনাইল-দৌলতপুর ভায়া সারোটিয়া গাজী ও পাছআরড়া যে কাঁচা রাস্তাটি রয়েছে, সেটিও বেহাল। বৃষ্টি হলেই চার কিলোমিটার এ সড়কে কাদা-পানি জমে দুর্ভোগের শিকার হতে হয় মানুষকে। বর্ষাকালে এই রাস্তার মাঝপথে অবস্থিত খালে পানি ঢুকলে নৌকা দিয়ে পার হতে হয়। এই কাঁচা রাস্তা সংস্কারের কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী। তারা বলছেন, আশপাশের কাঁচা রাস্তাগুলো পাকাকরণ হলেও গত ৫০ বছরে ওই চার কিলোমিটার রাস্তা পাকা করা হয়নি। শুধু নির্বাচন এলেই প্রার্থী ও রাজনৈতিক নেতাদের মুখে রাস্তাটি পাকা করার প্রতিশ্রুতি শোনা যায়। বর্তমানে কর্দমাক্ত রাস্তাটি দিয়ে হেঁটে চলাই মুশকিল হয়ে পড়েছে। রাস্তাটি পাকাকরণ ও খালে সেতু নির্মাণের দাবি এলাকাবাসীর।

সারোটিয়া গাজী গ্রামের আমিরুল ইসলাম আলোক ও মনির হোসেন বলেন, বৃষ্টি হলে কাঁচা রাস্তায় কাদাপানি জমে থাকে।

দপ্তিয়র ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম ফিরোজ সিদ্দিকী বলেন, গ্রাম দুটিতে যোগাযোগের সমস্যা দীর্ঘদিনের। ইউনিয়ন পরিষদের ছোট প্রকল্প দিয়ে এ সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়। যোগাযোগব্যবস্থার উন্নয়ন করতে হলে মেগাপ্রকল্প হাতে নিতে হবে।

advertisement