advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দক্ষিণ কোরিয়ায় বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

অসীম বিকাশ বড়ুয়া,দক্ষিণ কোরিয়া
৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:২৪ এএম | আপডেট: ৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:২৪ এএম
ছবি : আমাদের সময়
advertisement

দক্ষিণ কোরিয়ায় সরকারি বিধিনিষেধ মেনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গত বুধবার রাজধানী সিউলের পিয়ংটেক সিটির এন আর মার্ঠ অঙ্গনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন।

এ সময় বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের রুহের মাগফিরাত কামনা ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

আলোচনাসভাটি সঞ্চালনা করেন যুবদল নেতা নূর মোহাম্মদ সুমন ও রাসেল বিন সোলায়মান। এতে সভাপতিত্ব করেন দক্ষিণ কোরিয়া বিএনপির সভাপতি হারুনুর রশিদ হিরন। আলোচনাসভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন ছাত্রদলের সাবেক নেতা এস এম উজ্জ্বল। আরও বক্তব্য দেন দক্ষিণ কোরিয়া বিএনপি নেতা রুবেল খান, জাহাঙ্গীর আলম, জুবলি জিয়া প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসএম উজ্জ্বল বলেন, ‘একদলীয় শাসন কায়েমের পরে দেশে যে রাজনৈতিক শূন্যতা তৈরি হয়েছিল, তা পূরণ করতে জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেছেন। পরে দেশে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন তিনি। বর্তমানে বাংলাদেশে গণতন্ত্র সম্পূর্ণরূপে অনুপস্থিত। স্বৈরাচারী শাসকেরা একদিকে জনগণের অধিকার হরণ করছে, অন্যদিকে নির্যাতন ও নিপীড়নের স্টিমরোলার চালিয়ে বিএনপিকে নির্মূল করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।’

এসএম উজ্জ্বল আরও বলেন, ‘বিএনপি জনগণের দল, এই দলকে নির্মূল করা যাবে না। প্রতিবারই বিভিন্ন বাধা উপেক্ষা করে প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে দিয়ে বিএনপি ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এবারও জনগণের সক্রিয় সহযোগিতায় আমরা অবশ্যই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো। আর এটাই হচ্ছে এবারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমাদের একমাত্র শপথ।’

সভাপতির সমাপনী বক্তব্যে হারুনুর রশিদ হিরণ বলেন, ‘বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে আবারও বিএনপির নেতাকর্মীদের রাজপথে আন্দোলন এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে লবিং জোরদার করতে হবে।’

advertisement