advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

এইচপি দলের ব্যাটিং বিপর্যয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:১৮ পিএম
advertisement

ভালো অবস্থানে নেই হাইপারফরম্যান্স (এইচপি) দল। নাইম হাসান ও সাদমান ইসলামের বোলিং-নৈপুণ্যে শুরুটা ভালো হয়নি তাদের। দলীয় ৩০ রানের মধ্যে প্রথম সারির ৩ উইকেট হারিয়েছে এইচপি দল। সাদমানের বলে বোল্ড পারভেজ ইমন (১২)। মাহমুদুল হাসান (১) ও শাহাদত হোসেনকে (০) সাজঘরে ফেরান নাইম। তৃতীয় উইকেটে অবিচ্ছিন্ন ১১ রানের জুটি গড়ে উইকেটে আছেন তানজীদ হাসান (২১) ও তৌহিদ হৃদয় (৫)। দ্বিতীয় দিন শেষে প্রথম ইনিংসে এইচপি দলের সংগ্রহ ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ৪১ রান।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ৫ উইকেটে ২৬০ রানে ইনিংস শুরু করে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। ব্যক্তিগত ২৮ রানে ব্যাটিংয়ে নামা ইরফান শুক্কুর নিজেকে দারুণভাবে মেলে ধরেন। সবমিলিয়ে ২৬৫ মিনিট উইকেটে টিকে ছিলেন। আর কিছু সময় উইকেটে টিকে থাকতে পারলে সেঞ্চুরির স্বাদ পেতে পারতেন! তবে ব্যক্তিগত ৮৫ রানে সাজঘরে ফিরতে হয় ইরফানকে। হাসান মুরাদের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। তার ১৭৪ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১০টি চার ও ২টি ছক্কায়। ইরফানের সাথে ব্যক্তিগত ১৫ রানে ইনিংস শুরু করা মুনিম শাহরিয়ারের ইনিংস থামে ১৫ রানেই। সুমন খানের বোলিংয়ের সামনে ‘এ’ দলের বাকি ব্যাটসম্যানরা সুবিধা করতে পারেননি। ৫ উইকেট হারিয়ে ২৬০ রান তুলেছিল মিথুনের দল। শেষ ৫ ব্যাটসম্যান মিলে স্কোরবোর্ডে জমা করেন ৭৯ রান। বাংলাদেশ ‘এ’ দলের ইনিংস থামে ৩৩৯ রানে। করোনা মহামারীর কারণে ‘এ’ দল ও এইচপি দলের বিদেশ সফর কিংবা বিদেশি দলের সঙ্গে সিরিজ খেলা সম্ভব না হওয়ায় নিজেদের মধ্যে দুটি চার দিনের ম্যাচ ও তিনটি একদিনের ম্যাচের সিরিজ আয়োজন করেছে বিসিবি। ‘এ’ দলে আছেন মুমিনুল হকসহ টেস্ট দলের বেশ কয়েক ক্রিকেটার। তবে পারিবারিক কারণে প্রথম ম্যাচে খেলছেন না মুমিনুল। গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া চার দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের প্রথম দিনে ব্যাটিংয়ে উজ্জ্বল ছিলেন নাজমুল হোসেন শান্ত।

৪ রানের জন্য সেঞ্চুরি পাননি ‘এ’ দলের ব্যাটসম্যান। এছাড়া ফিফটি করেন সাদমান ইসলাম। দ্বিতীয় দিনে দারুণ ব্যাটিংয়ে দলকে বড় সংগ্রহের ঘরে পৌঁছে দেন ইরফান শুক্কুর। সুমন খান ৪টি ও হাসান মুরাদ ২টি উইকেট শিকার করেন। তবে প্রথম ইনিংসের শুরুতে এইচপি দলের প্রথম সারির ব্যাটসম্যান- পারভেজ, মাহমুদুল, শাহাদত নিজেদের মেলে ধরতে ব্যর্থ হয়েছেন।

advertisement
advertisement