advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

জিততে ভুলে গেছে জুভেন্টাস

ক্রীড়া ডেস্ক
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:৪২ পিএম
advertisement

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর অভাব হাড়ে হাড়েই যেন টের পাচ্ছে জুভেন্টাস। আলোচনার জন্ম দিয়ে তুরিন ছেড়ে সাবেক ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফিরেছেন সিআর সেভেন। এদিকে পর্তুগিজ উইঙ্গারকে হারিয়ে ‘ঢাল-তলোয়ারহীন সৈনিক’ হয়ে দাঁড়িয়েছে ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রির দল। সিরিএর চলতি মৌসুমে চার ম্যাচ খেলে ফেললেও এখনো জয়ের দেখা পায়নি তুরিনের বুড়িরা।

এবার ঘরের মাঠ তুরিনে ম্যাচের শুরুতে এগিয়ে গিয়েও এসি মিলানের বিপক্ষে ১-১ ব্যবধানে ড্র করেছে জুভরা। পয়েন্ট তালিকাতেও তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে লিগ ইতিহাসের সবচেয়ে সফল ক্লাবটি। চার ম্যাচে ২ হার ও ২ ড্র নিয়ে মাত্র ২ পয়েন্ট নিয়ে ১৮তম স্থানে জুভেন্টাস। যেখানে সমান ম্যাচে ৩ জয় ও এক ড্রয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে মিলান। সমান পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে তাদের নগর প্রতদ্বন্দ্বী ইন্টার মিলান।

লিগের ৬০ বছরের মধ্যে এবারই সবচেয়ে বাজে শুরু জুভদের। ১৯৬১-৬২, ১৯৫৫-৫৬ ও ১৯৪২-৪৩ মৌসুমের পর এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো চার ম্যাচ খেলে এখনো জয়ের দেখা পায়নি জুভেন্টাস। উদিনেসের সঙ্গে ২-২ ড্রয়ের পর নবাগত এম্পোলির বিপক্ষে ১-০ ও নাপোলির বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরেছিল জুভেন্টাস। ম্যাচ শেষে ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ডিএজেডএনকে অ্যালেগ্রি জানালেন, একটা সময়ে হ্যাটট্রিক হারের শঙ্কা পেয়ে বসেছিল তাকে। তিনি বলেন, ‘ভাগ্যক্রমে রেফারি ম্যাচ শেষের বাঁশি বাজিয়েছিলেন, নয়তো আমরা ম্যাচটি হারতে পারতাম। আজ (রবিবার) রাতে আমি বেশ ক্ষিপ্ত। প্রথমার্ধে দল ভালো খেলেছে, মিলান শুধু একটি লম্বা শট নিতে পেরেছে। শেষ পর্যন্ত, তারা সমতা ফেরানোর আগ পর্যন্ত ম্যাচ সম্পূর্ণ আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকলেও আমরা হারের ঝুঁকিতে পড়ে গিয়েছিলাম। দুর্ভাগ্যবশত আমরা মনোযোগ এবং দৃঢ়তা হারিয়ে ফেলেছিলাম... দলকে এক ধাপ এগিয়ে নিতে হলেও আমাদের উন্নতি করতে হবে।’

১-০ গোলে এগিয়ে থাকা অবস্থায় দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে দুই মিডফিল্ডার ফেদেরিকো চিয়েসা ও দেজান কুলুসেভস্কি এবং ফরোয়ার্ড ময়েসে কিনকে মাঠে নামান অ্যালেগ্রি। তবে ম্যাচ শেষে ৫৪ বছর বয়সী এই কোচের উপলব্ধি, সঠিক বদলি খেলোয়াড় নামাননি তিনি। তিনি বলেন, ‘আমি স্বীকার করছি যে, বদলি খেলোয়াড় নামানোয় আমি ভুল করেছি। আমি এটা ভুল বুঝেছি। আমার আরও রক্ষণাত্মক খেলোয়াড় নামানো উচিত ছিল এবং ১-০ গোলের অগ্রগামিতাকে রক্ষা করা উচিত ছিল। এটার (ম্যাচ ড্র) দায় আমি নিচ্ছি।’

advertisement