advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

কাঁচপুরে ফের শ্রমিক অসন্তোষ

রবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ

সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৩:০১ এএম
advertisement

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরে তিন মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে আবারও কয়েক দফা সড়ক অবরোধের চেষ্টা করেছেন ওপেক্স অ্যান্ড সিনহা গার্মেন্টসের শ্রমিকরা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে চাঁদমহল সিনেমা হলের সামনে শতাধিক শ্রমিক সড়কে অবস্থান নিয়ে টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধের চেষ্টা করেন। খবর পেয়ে শিল্প পুলিশ সদস্যরা শ্রমিকদের সেখান থেকে সরিয়ে দেন।

একই দাবিতে গত বুধবার কাঁচপুর এলাকায় বিকাল থেকে চলা অবরোধ সরাতে গেলে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে যান চলাচল বন্ধ করার পাশাপাশি পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করেন শ্রমিকরা। বিক্ষোভে রাবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে পুলিশ। সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত চলে এ ঘটনা।

এ ঘটনায় সজীব নামে এক পুলিশ সদস্যকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকা রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে পাঠানো হয়েছে। এ সময় শ্রমিকদের ছোড়া ইটের আঘাতে সোনারগাঁ থানার ওসিসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এছাড়া প্রায় ৩৫ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৩০ রাউন্ড কাঁদানে গ্যাস ও ৬০ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে।

গতকাল বৃহস্পতিবার অবরোধে অংশ নেওয়া শ্রমিক রায়হান জানান, শ্রমিকদের

অবসর সার্ভিসের টাকা, মাতৃত্বকালীন ছুটি, বাৎসরিক ছুটির টাকা, মৃত্যুজনিত এককালীন বীমার টাকা পরিশোধ করা হচ্ছে না। এ নিয়ে মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা বললে ছাঁটাই করার ভয়ভীতি দেখায়।

তারা আরও জানান, আমাদের পাওনা না পাওয়ায় আবারও সড়কে নেমেছি। মালিকপক্ষ বারবার সময় নিলেও আমাদের পাওনা পরিশোধ করছে না। আমাদের পাওনা পরিশোধ না করলে মহাসড়কে বিক্ষোভ চলবে।

নারায়ণগঞ্জ পুলিশ সুপার (শিল্প পুলিশ-৪) আইনুল হক বলেন, সকালে তারা বিক্ষিপ্তভাবে সড়কে নেমে অবরোধের চেষ্টা করেন। আমরা তাদের সরিয়ে দিয়েছি। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

পুলিশ সুপার আরও জানান, মালিকপক্ষের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা আগামী বুধবার পাওনা পরিশোধ করবেন বলে সময় দিয়েছেন। শ্রমিকরা সেটা না মেনে সড়কে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করছে।

advertisement
advertisement