advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচনে কাজের মূল্যায়ন দেখতে চান সুজন

ক্রীড়া প্রতিবেদক
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৬:৪৬ পিএম | আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৭:৪৩ পিএম
পুরোনো ছবি
advertisement

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নির্বাচন ঘনিয়ে এসেছে। নির্বাচন ঘিরে তেমন উত্তাপ নেই, তবে মনোনয়ন তোলার শেষ দিনে এসে কিছু উত্তাপ ছড়িয়েছে মিরপুরে। শুরুতে ক্যাটাগরি-৩ থেকে এককভাবে নির্বাচিত হওয়ার গুঞ্জন ছিল খালেদ মাহমুদ সুজনের। কিন্তু আজ শেষ দিনে এসে একই পদের লড়াই করতে মনোনয়ন তুলেছেন ক্রিকেট বিশ্লেষক নাজমুল আবেদীন ফাহিম।

দীর্ঘ আট বছর ধরে বিসিবিতে কাজ করে যাচ্ছেন সুজন। তার প্রতিদ্বন্দ্বিও ক্রিকেটের চেনা মুখ। বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি) কাজ করে আসছেন। যার কারণে আসন্ন নির্বাচনে দু’জনের লড়াইটা বেশ জমজমাট হতে যাচ্ছে। সুজন নির্বাচিত প্রতিনিধি হলেও ফাহিমের জন্য এটা প্রথমবার। তবে এবার বিসিবিকে কিছু দেওয়ার প্রত্যাশা নিয়েই নির্বাচনে এসেছেন তিনি।

নির্বাচনের আমেজ প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছাড়া প্রকাশ পায় না। যার কারণে ফাহিম আসায় নতুন ভাবনা দেখছেন সুজন। তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে তো প্রতিদ্বন্দ্বী থাকবে সেটাই স্বাভাবিক। নিশ্চিতভাবে ফাহিম ভাই আমার কোচ, অনেক সিনিয়র, আমরা এক সাথে ছিলাম, কাজ করেছি, গেম ডেভেলপমেন্টে তিনি আমার আন্ডারে ছিলেন, কাজ করেছেন। চ্যালেঞ্জ তো আমি সব সময়ই পছন্দ করি, এটা আমার জন্য ভালো। তিনি নির্বাচনে এসেছেন তাতে আমি খুশি।’

নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে সুজন বলেন, ‘কেমন হবে সেটা তো বলা কঠিন। আমরা আমাদের যারা কাউন্সিলর হয়েছেন তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছি, কথা বার্তা বলার চেষ্টা করছি। এখন সেটার মূল্যায়ণ তো কাউন্সিলর যারা আছেন তারা করবেন। আমার তো এর আগে একটা নির্বাচন করার অভিজ্ঞতা আছে। তখন তো আমি কোনো পদেই ছিলাম না। এই বোর্ডটাতে আমি আট বছর কাজ করেছি, কতোটা ভালো কাজ করেছি সেটার মূল্যায়ণ আমি বুঝতে পারবো। আমি যদি ইলেকশন না জিতি তাহলে বুঝতে পারবো আমি কতটুকু কাজ করতে পেরেছি, মূল্যায়নটা আমার কি রকম।’

advertisement