advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দা দিয়ে শিশুকে কুপিয়ে হত্যা

হালুয়াঘাট প্রতিনিধি
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:০০ পিএম | আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:৪৫ পিএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে দা দিয়ে কুপিয়ে সুমন নামে আট বছরের এক শিশুকে হত্যার খবর পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে কোদালিয়া ফেরি ঘাটের কাছে এ ঘটনা ঘটে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নের পূর্ব ধুরাইল গ্রামের শরীফ (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নিহত শিশু সুমন একই গ্রামের জুয়েলের ছেলে। তার মা মালেছা বেগম বলেন, ‘সুমনের সঙ্গে পাশের বাড়ির শরীফের ১৫ দিন আগে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ওই দিনই শরীফ আমার বাড়িতে দা নিয়ে আমার শিশু সন্তানকে মারতে আসে। পরে শরীফের বাবা শাহ্জাহান এ ঘটনায় ক্ষমা চান।’

এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে শরীফ বাড়ি থেকে সুমনকে ডেকে নিয়ে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে নদীর পাড়ে ফেলে যায় বলে দাবি করেন সুমনের মা। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবি করেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কোদালিয়া ফেরি ঘাটের ইজারাদার হেলাল উদ্দিন ভূইয়া বলেন, ‘আমি নৌকা নিয়ে নদীর ওই পাড়ে ছিলাম। হঠাৎ দেখি নদীর পাড়ে এক শিশুকে দা দিয়ে কোপাচ্ছেন শরীফ। তখন আমি ও সঙ্গে থাকা লোকজন চিৎকার করলে শরীফ ছেলেটিকে নদীর পাড়ে ছুঁড়ে মারেন। শরীর থেকে তার মাথা বিচ্ছিন্ন করে ফেলেন।’

এ বিষয়ে হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুজ্জামান খান বলেন, ‘স্থানীয়দের কাছ থেকে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে হত্যাকাণ্ডে জড়িত শরীফকে আটক করেছি। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। এ ঘটনায় হালুয়াঘাট থানায় একটি হত্যা মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।’

advertisement