advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দুই ডোজ টিকা নিলে ঘুরে আসা যাবে থাইল্যান্ড

অনলাইন ডেস্ক
১২ অক্টোবর ২০২১ ০১:১৮ পিএম | আপডেট: ১২ অক্টোবর ২০২১ ০১:৩৪ পিএম
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

পর্যটকদের জন্য নিজেদের দেশ ফের উন্মুক্ত করতে যাচ্ছে থাইল্যান্ড। করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি কম, এমন অন্তত ১০ দেশের পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া পর্যটকদের জন্য আকাশপথ খুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করছে দেশটি। আজ মঙ্গলবার বিবিসি'র এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

বিবিসি জানিয়েছে, গতকাল সোমবার থাই প্রধানমন্ত্রী প্রাউত চান-ওচা তার সরকারের এ পরিকল্পনার কথা জানান। তিনি বলেন, আগামী ১ নভেম্বর থেকে এ পরিকল্পনা কার্যকর করার কথা ভাবছেন তারা।

প্রাউত চান-ওচা স্বীকার করে বলেন, এ সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে কিছু ঝুঁকির দিক রয়েছে। তা সত্ত্বেও করোনা মহামারির কারণে ধুঁকতে থাকা থাই অর্থনীতিকে বাঁচানোর জন্য এমন সিদ্ধান্ত নেওয়াটা জরুরি হয়ে পড়েছে।

প্রাউত চান-ওচা আরও জানিয়েছেন, ওই ১০ দেশের পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া পর্যটকদের থাইল্যান্ডে এসে করোনার ‘নেগেটিভ’ সনদ দেখাতে হবে। থাইল্যান্ডে আসার পর তাদের করোনা পরীক্ষা করতে হবে। এ পরীক্ষায় ‘নেগেটিভ’ এলে তারা থাইল্যান্ডে অবাধে ভ্রমণ করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে তাদের থাইল্যান্ডে এসে আর কোয়ারেন্টিন করতে হবে না।

করোনা মহামারির আগে থাইল্যান্ডে বছরে কয়েক কোটি পর্যটক আসতেন। থাইল্যান্ডের জাতীয় আয়ে পর্যটন খাতের অবদান প্রায় ২০ শতাংশ। কিন্তু করোনা-সম্পর্কিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় বড় ধরনের বিপর্যয়ের মুখে পড়ে দেশটির পর্যটন খাত। এ খাতকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য কিছু দেশের পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া পর্যটকদের জন্য থাইল্যান্ডের আকাশপথ উন্মুক্ত করার পরিকল্পনাকে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

কম ঝুঁকিপূর্ণ ১০ দেশের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, চীন, সিঙ্গাপুরের নাম থাকতে পারে বলে উল্লেখ করেন প্রাউত চান-ওচা। পূর্ণ তালিকা চলতি মাসের শেষের দিকে প্রকাশিত হতে পারে।

advertisement