advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

অ্যাস্ট্রাজেনেকার ফর্মুলা চুরির অভিযোগ রুশ গুপ্তচরের বিরুদ্ধে

অনলাইন ডেস্ক
১৩ অক্টোবর ২০২১ ১১:৪১ এএম | আপডেট: ১৩ অক্টোবর ২০২১ ১২:২৩ পিএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কারের পর থেকেই এর স্বীকৃতি আর কার্যকারিতা নিয়ে মুখোমুখি বিভিন্ন দেশ। এ নিয়ে হয়েছে নানা আলোচনা। এবার উঠেছে ভ্যাকসিনের সূত্র চুরির মতো গুরুতর অভিযোগ। এক রুশ গুপ্তচরের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে টিকার ফর্মুলা চুরির। ব্রিটিশ বেশ কিছু গণমাধ্যম দাবি করেছে, অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার ফর্মুলা চুরি করেছে ওই গুপ্তচর। সেই আদলে স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিন তৈরি করেছে রাশিয়া, এমন দাবিও করেছে তারা ।

এসব প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, ব্রিটেন ভ্যাকসিন আবিষ্কারের একমাস পরই করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার করে রাশিয়া। দুই টিকার কার্যপ্রণালীও একই রকম। অ্যাস্ট্রাজেনেকা এবং স্পুটনিক দুটোই মানবদেহের প্রতিরক্ষা প্রণালীকে সক্রিয় করে ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে তোলে। ব্রিটিশ টিকার ফর্মুলা চুরির জন্য ২০২০ সালে অক্সফোর্ডের সার্ভারে সাইবার হামলাও করা হয়।

তবে এ বিষয়ে স্পষ্ট বক্তব্য না দিলেও ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ ধরণের অভিযোগ উড়িয়ে দেওয়া যায় না। বিদেশি শক্তিগুলো সব সময়ই ব্রিটেনের সংবেদনশীল তথ্য এবং বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদ হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে আসছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এদিকে, এ ধরনের অভিযোগের বিপরীতে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে মস্কো। স্পুটনিক ভি কর্তৃপক্ষ বলছে, যথাযথ শর্ত এবং পদক্ষেপ অনুসরণ করেই চূড়ান্ত ধাপে পৌঁছেছে তাদের ভ্যাকসিন।

এ প্রসঙ্গে, রাশিয়ার পররাষ্ট্রন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেন, এসব একেবারেই অবান্তর বিষয়। এসব নিয়ে মন্তব্য করার কোনো অর্থ হয় না। ব্রিটেন কিংবা যুক্তরাষ্ট্র কেউই এ ধরনের অভিযোগকে গুরুত্বের সঙ্গে নেবে না বলেও মনে করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ১১ আগস্ট স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ঘোষণা দেয় রাশিয়া। সে সময় করোনার বিরুদ্ধে এ টিকাকে ৯২ শতাংশ কার্যকর বলে দাবি করা হয়।  

advertisement