advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

প্রেম প্রত্যাখ্যান করায় স্কুলছাত্রী ও তার ভাইকে পিটিয়ে জখম

দাগনভূঞা (ফেনী) প্রতিনিধি
১৩ অক্টোবর ২০২১ ০৯:৩৭ পিএম | আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০২১ ০৯:১১ এএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় স্কুলছাত্রী ও তার ভাইকে পিটিয়ে জখম করেছেন মো. ইসরাফিল (২০) নামের এক যুবক। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর আজ বুধবার রাতে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ইসরাফিলে বাড়ি উপজেলার বারাহিগোবিন্দ গ্রামে। তিনি একই এলাকার অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে প্রেম নিবেদন করেন। তবে এতে রাজি ছিল না ওই স্কুলছাত্রী।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ইসরাফিলের বিষয়ে তার পরিবারকে জানান স্কুলছাত্রীর ভাই ও তার মা। এতে ক্ষিপ্ত হন ওই যুবক। একপর্যায়ে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ওই ছাত্রী ও তার ভাইকে পিটিয়ে জখম করেন ইসরাফিল। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। ঘটনার দিন রাতেই  ‍ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ইসরাফিল, লোকমান হোসেন লোকমান (৪৫), পারুল (৩৫) ও বিলকিছসহ (২৮) অজ্ঞাতনামা ২-৩ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার বাদী বলেন, ‘বখাটে ইসরাফিল আমার মেয়েকে স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে প্রেম নিবেদন করত। বিষয়টি নালিশ দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে আমার মেয়ে ও ছেলেকে পিটিয়ে জখম করে। এ সময় আসামিরা  আট আনা ওজনের স্বর্ণ নিয়ে যায় এবং আমার মেয়ের শ্লীলতাহানি ঘটায়। আমাকেও শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার চেষ্টা চালায়।’

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) মাসুদ আলম জানান,  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইসরাফিলকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্য আসামিদের  গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইমতিয়াজ আহমেদ গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘আসামিকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।’

advertisement