advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

জামালপুরে মনোনয়ন বাতিল দাবিতে মহাসড়কে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, জামালপুর
১৭ অক্টোবর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৭ অক্টোবর ২০২১ ০২:৩৪ এএম
জামালপুরের মেষ্টা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বদরুল হাসানের মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে রাস্তা অবরোধ করে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ ষ আমাদের সময়
advertisement

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জামালপুর সদর উপজেলার মেষ্টা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. বদরুল হাসান বিদ্যুতের মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে মহাসড়কে টায়ারে আগুন জ¦ালিয়ে বিক্ষোভ করেছেন স্থানীয়রা।

গতকাল শনিবার দুপুর ১২টার দিকে জামালপুর-সরিষাবাড়ি মহাসড়কের মেষ্টা ইউনিয়নের হাসিল টনকি মোড়ে সড়ক অবরোধ করে মানববন্ধন, বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করে বিক্ষুব্ধরা। এদিকে জামালপুর-সরিষাবাড়ি সড়ক অবরোধ করে টায়ার জ¦ালিয়ে বিক্ষোভ করায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

এ সময় বক্তব্য রাখেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সুজাত আলী ফকির, মুক্তিযোদ্ধা বাচ্চু খান, মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল করিম খান, মেষ্টা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি জয়নাল আবেদীন, ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনু, হেলাল উদ্দিন মাস্টার, ওয়ার্ড মহিলা নেত্রী হেলিকা বেগমসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা।

বক্তারা বলেন, মেষ্টা ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে ছানোয়ার হোসেন সবুজকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। কিন্তু দুদিন পর কোনো কারণ ছাড়াই সবুজের মনোয়ন বাতিল করে মো. বদরুল হাসান বিদ্যুৎকে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দেয় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ। একটি চক্র তাদের উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য এই কাজটি করেছেন বলে দাবি করেন বক্তারা।

বক্তারা আরও বলেন, ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন মো. বদরুল হাসান বিদ্যুৎ প্রথমে ইউনিয়ন ছাত্রদল ও পরে ইউনিয়ন যুবদলের সদস্য ছিলেন। এ ছাড়া মেষ্টা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদকের আপন ভাতিজা বিদ্যুৎ। সেই সময় বিদ্যুৎ আওয়ামী লীগের বিপক্ষে কাজ করেছেন। তার মতো ব্যক্তিকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ায় দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। বিক্ষুব্ধ হয়েছে ইউনিয়নবাসী। তাই তারা অতিদ্রুত বিদ্যুতের মনোনয়ন বাতিল করে পুনরায় সবুজকে মনোনয়ন প্রদানের দাবি জানান।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. বদরুল হাসান বিদ্যুৎ মোবাইল ফোনে বলেন, আমি ছাত্রলীগ থেকে উঠে আসা একটি ছেলে। বর্তমানে জামালপুর সদর উপজেলা যুবলীগের ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক পদে রয়েছি। আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে এবং মেষ্টায় অরাজকতা সৃষ্টি করার পাঁয়তারা করছে একটি পক্ষ।

তিনি আরও বলেন, মেষ্টা ইউনিয়ন বিএনপি কিছু নকল কাগজপত্রে আমার নাম ঢুকিয়ে দিয়েছি। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। খুনি মোশতাকের পরিবারের মতো মেষ্টার কিছু পরিবার আওয়ামী লীগের সম্মানকে ক্ষুণ্ন করতেই এমন মানববন্ধন করছে। যারা মহাসড়কে আগুন জ¦ালিয়ে আন্দোলন করছে, তারা নারী কেলেঙ্কারির জন্য মনোনয়ন হারিয়েছে।

advertisement
advertisement