advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

যুবরাজ সিং গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক
১৮ অক্টোবর ২০২১ ১০:২৮ এএম | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২১ ০৩:০২ পিএম
ভারতের সাবেক ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। পুরোনো ছবি
advertisement

বৈষম্যমূলক মন্তব্য করার অভিযোগে গ্রেপ্তার হন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। পরে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছাড়া পান এ অলরাউন্ডার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, গত বছর ইনস্টাগ্রামে একটি নাচের ভিডিও পোস্ট করেছিলেন যুজবেন্দ্র চাহাল। যুবরাজের বিরুদ্ধে অভিযোগ সেই ভিডিও নিয়ে গত বছর ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মার সঙ্গে একটি ইনস্টাগ্রাম লাইভ সেশনে হাজির হয়েছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় অলরাউন্ডার। লাইভ আড্ডায় তিনি বৈষম্যমূলক মন্তব্য করেছিলেন। ফলে তাকে গ্রেপ্তারের দাবি ওঠে।

এক বছর আগে করা মন্তব্যের জেরে গতকাল রোববার তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে কয়েকদিন আগেই এ সংক্রান্ত মামলায় হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়েছিলেন যুবরাজ সিং। এদিন তাই তদন্তে সাহায্য করতেই পুলিশের কাছে এসেছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার। সঙ্গে ছিলেন তার নিরাপত্তারক্ষী এবং উকিল। এরপরই আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপরই কিছু প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হয় যুবরাজকে। তারপর আগাম জামিনের কাগজের ভিত্তিতে তাকে ছেড়েও দেওয়া হয়।

যুবরাজ বলেছিলেন, আমি কখনও কোনো জাতি, বর্ণ, ধর্ম অথবা লিঙ্গের বৈষম্যে বিশ্বাস করিনি। সারা জীবন মানুষের জন্য কাজ করেছি। আমি মানুষকে মর্যাদা দেওয়ায় বিশ্বাস করি। মানুষ একে অপরকে নিঃস্বার্থভাবে সম্মান করুক, এটাই চেয়ে এসেছি। বন্ধুদের কথা বলার সময় আমার একটি কথার অন্য অর্থ করা হয়েছে, যেটা অনভিপ্রেত। ভারতের একজন দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে আমি যদি কারও ভাবাবেগে আঘাত করে থাকি, তার জন্য ক্ষমা চাইছি। আমি ভারতকে ভালোবাসি আর ভারতবাসী সব সময় আমার অন্তরে থাকে।

এ ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের ঝাঁসি শহরে যুবরাজের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই যুবরাজকে গ্রেপ্তার করা হয়।

দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, হাইকোর্টের নির্দেশ মতো তদন্তকারী কর্মকর্তা ডেপুটি পুলিশ সুপারের বিনোদ শঙ্করের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন যুবরাজ। পুলিশের তদন্তেও সাহায্য করেন। তাকে প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। গ্রেপ্তারের পর অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছাড়া পান যুবরাজ।

ভারতের হয়ে ২০০০ সালে অভিষেক ঘটে যুবরাজের। টি২০ বিশ্বকাপ (২০০৭) এবং বিশ্বকাপ (২০১১) জয়ী দলের সদস্য ছিলেন এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। দুটি প্রতিযোগিতার সেরা ক্রিকেটার ছিলেন তিনি। ভারতের হয়ে ৪০টি টেস্ট, ৩০৪টি একদিনের এবং ৫৮টি টি২০ ম্যাচ খেলেছেন যুবরাজ। তার ঝুলিতে রয়েছে ১৭টি আন্তর্জাতিক শতরান। টেস্টে ১৯০০ রান করেছেন তিনি। একদিনের ক্রিকেটে করেছেন ৮৭০১ রান। টি২০ ক্রিকেটে ১১৭৭ রান করা যুবরাজ অবসর নেন ২০১৯ সালে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৪৮টি উইকেটও নিয়েছেন তিনি।

advertisement
advertisement