advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

প্রেমিকার আত্মহত্যার খবরে চারতলা থেকে লাফ দিলেন প্রেমিক

নিজস্ব প্রতিবেদক,বগুড়া
১৮ অক্টোবর ২০২১ ০৪:৩৬ পিএম | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২১ ০৮:৩৩ পিএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

বগুড়ায় মনোমালিন্যের জেরে প্রেমিকার আত্মহত্যার পর হাসপাতালের চার তলা থেকে আত্মহত্যার উদ্দেশ্যে লাফ দিয়েছেন প্রেমিক। তবে গুরুতর আহত হলেও প্রাণে বেঁচে গেছেন তিনি। যে হাসপাতালে তরুণীর মরদেহ রাখা হয়েছে বর্তমানে সেখানেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে ওই প্রেমিককে।

জানা গেছে, নিহত ওই তরুণীর নাম নাহিদা আক্তার (১৮)। বগুড়া শহরের একটি কলেজের উচ্চমাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্রী নাহিদা শহরের একটি ছাত্রীনিবাসে থেকে তিনি পড়াশোনা করতেন। আত্মহত্যার চেষ্টাকারী তরুণের বাড়ি কুষ্টিয়া সদরের দহগ্রাম এলাকায়।

ছিলিমপুর মেডিকেল ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) শামিম হোসেন জানান, আত্মহত্যার চেষ্টাকারী যুবকের সঙ্গে ফেসবুকে নাহিদার পরিচয় হয়। সেখান থেকে প্রেম। রোববার কুষ্টিয়া থেকে বগুড়ায় প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে আসেন ওই যুবক। ঘোরাফেরার এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে কোনো বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। এরই জেরে নাহিদা গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করেন।

এসআই শামিম আরও জানান, বিকেল ৪টার দিকে নাহিদাকে মুমুর্ষু অবস্থায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান ওই যুবক। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নাহিদা। তার মৃত্যুর কিছুক্ষণ পর হাসপাতালের চারতলায় উঠে আত্মহত্যার উদ্দেশ্যে লাফ দেন নাহিদার প্রেমিক। এ সময় পুলিশ ও হাসপাতালের লোকজন গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ওই হাসপাতালেই ভর্তি করান। ওই যুবকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ছিলিমপুর মেডিকেল ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, ‘নাহিদার সহপাঠীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে তার পরিবারের সদস্যরা বগুড়ায় পৌঁছেছেন। আহত ওই যুবকের পরিবারকেও খবর দেওয়া হয়েছে। নাহিদার লাশ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ পেলে আইনগত প্রক্রিয়া শেষে লাশ হস্তান্তর করা হবে।’

advertisement
advertisement