advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বৈরী আবহাওয়া
তিন শতাধিক পর্যটক আটকা সেন্টমার্টিনে

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি
১৯ অক্টোবর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২১ ১১:০৩ পিএম
advertisement

বৈরী আবহাওয়ার কারণে কক্সবাজারের সেন্টমার্টিন দ্বীপে গত দুদিন ধরে আটকা পড়েছেন তিন শতাধিক পর্যটক। তারা গত শনিবার ট্রলারে চেপে দ্বীপে বেড়াতে যান। সাগর উত্তাল থাকায় এবং আবহাওয়া অফিস স্থানীয় তিন নম্বর সতর্ক সংকেত ঘোষণা করায় গতকাল সোমবারও কোনো ট্রলার দ্বীপ থেকে ছেড়ে আসেনি। ফলে পর্যটকদের দ্বীপেই থাকতে হয়েছে।

অন্যদিকে বিভিন্ন প্রয়োজনে এবং একটি ফুটবল ম্যাচ দেখতে গিয়ে সেন্ট মার্টিনের পাঁচ শতাধিক বাসিন্দা টেকনাফে আটকা পড়েছেন বলে জানা গেছে।

সেন্টমার্টিন কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার লে. তারেক আহমেদ জানান, সোমবার সকাল থেকে ঝড়ো-বৃষ্টি থাকলেও বিকালে অবস্থা স্বাভাবিক হওয়ায় টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে নৌযান চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসায় মাঝিরা কোনো ট্রলার ছাড়েননি। লে. তারেক জানান, সোমবারও পর্যটকদের দ্বীপে থাকতে হচ্ছে। সব ঠিক থাকলে মঙ্গলবার সকালে পর্যটকরা দ্বীপ ছাড়তে পারবেন। তবে আমরা এখানে পর্যটকদের খোঁজ খবর রাখছি, যাতে তাদের কোনো অসুবিধা না হয়। এ বিষয়ে সেন্টমার্টিন বোট মালিক সমিটির সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম জানান, সোমবার বিকাল থেকে যাত্রীবাহী ট্রলার চলাচলের অনুমতি দিয়েছে। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে। কারণ দ্বীপ থেকে একটি ট্রলার টেকনাফ পৌঁছতে তিন ঘণ্টা সময় লাগে। তার মধ্যে সাগরের অবস্থা খারাপ হলে বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি হয়। তাই সোমবার দ্বীপ থেকে কোনো ট্রলার ছাড়েনি। ফলে ভ্রমণে আসা তিনশর বেশি পর্যটক দ্বীপে আটকা পড়েছেন।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান, দ্বীপে তিন শতাধিক পর্যটক আটকা আছে। উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশনায় তাদের দেখভাল করা হচ্ছে। অন্যদিকে বিভিন্ন কাজে এবং একটি ফুটবল ম্যাচ দেখতে গিয়ে সেন্ট মার্টিনের পাঁচশতাধিক বাসিন্দা টেকনাফে আটকা পড়েছে। তাদেরও ফেরার ব্যাপারে উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে।

এ ব্যাপারে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ পারভেজ চৌধুরী জানান, সাগরে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হলেও বিকাল হওয়ায় দ্বীপ থেকে কোনো ট্রলার ছাড়েনি। তবে দ্বীপে রয়ে যাওয়া পর্যটকদের যাতে কোনো ধরনের সমস্যায় পড়তে না হয় সেজন্য আমরা সব সময় খোঁজ-খবর নিচ্ছি।

advertisement
advertisement