advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত বদল
আত্মসমর্পণ করে জামিন পেলেন সেই শাহজাহান

আদালত প্রতিবেদক
১৯ অক্টোবর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৯ অক্টোবর ২০২১ ১১:২৬ এএম
advertisement

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে নথি চুরি করে প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্ত বদলে দেওয়ার অভিযোগে জালিয়াতি ও দুর্নীতির মামলায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন। গতকাল সোমবার তিনি আইনজীবী খাজা গোলামুর রহমানের মাধ্যমে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চান। পরে ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কেএম ইমরুল কায়েশ ১১ নভেম্বর পর্যন্ত তার জামিন মঞ্জুর করেন। নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যাক্ষ পদে নিয়োগের বিষয়ে এ জালিয়াতি ও দুর্নীতির ঘটনাটি ঘটে।

জালিয়াতির ওই ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক-৭ মোহাম্মদ রফিকুল আলম বাদী হয়ে গত ৫ মে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় পুলিশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সহসভাপতি তরিকুল ইসলাম মমিন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কর্মচারী ফাতেমা খাতুন, নাজিম উদ্দীন, রুবেল, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ফরহাদ হোসেন ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের সাবেক কোষাধ্যক্ষ অবসরপ্রাপ্ত এয়ার কমোডর এম আব্দুস সালাম আজাদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে; কিন্তু অভিযোগ দুদকের এখতিয়ারভুক্ত হওয়ায় পরে দুদকের উপপরিচালক ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী আটজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মামলায় বলা হয়, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে কোষাধ্যক্ষ পদে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এনামুল হক, বুয়েটের অধ্যাপক আব্দুর রউফ এবং ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের সাবেক কোষাধ্যক্ষ অবসরপ্রাপ্ত এয়ার কমোডর এম আবদুস সালাম আজাদের নাম প্রস্তাব করে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়। প্রধানমন্ত্রী অধ্যাপক ড. এম এনামুল হকের নামের পাশে টিক চিহ্ন দেন। এর পর চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য নথিটি রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানোর প্রস্ততি পর্বে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অফিস সহকারী ফাতেমার কাছে এলে তিনি ছাত্রলীগ নেতা তরিকুলকে জানান, এম আবদুস সালাম আজাদ অনুমোদন পাননি। এর পরই নথিটিতে টেম্পারিং করে নাম পাল্টে দেওয়া হয়।

advertisement
advertisement