advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ইংল্যান্ড ম্যাচে লিটনকে একাদশে রাখার ইঙ্গিত গিবসনের

ক্রীড়া প্রতিবেদক
২৬ অক্টোবর ২০২১ ০৬:৩৪ পিএম | আপডেট: ২৬ অক্টোবর ২০২১ ০৮:৩৯ পিএম
পুরোনো ছবি
advertisement

বেশ কয়েক মাস ধরে সময়টা ভালো যাচ্ছে না লিটন কুমার দাসের। ব্যাট হাতে রানের খরা ফুরানোর আগে ফিল্ডিংয়েও বেশ অগোছালো দেখা যাচ্ছে তাকে। দীর্ঘ সময় ধরে রান না পাওয়ায় মানসিকভাবেও হতাশ হয়ে পড়েছেন তিনি। এই অবস্থায় তাকে বিশ্রামে রাখার কথা উঠলেও আগামীকাল ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও এই ক্রিকেটারকে একাদশে রাখার ইঙ্গিত দিয়েছেন টাইগারদের বোলিং কোচ ওটিস গিবসন।

আজ মঙ্গলবার সংযুক্ত আরব আমিরাতে দলীয় অনুশীলনের ফাঁকে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। গিবসন বলেন, ‘দল লিটনের পাশে আছে। পাশাপাশি সবসময়ই তার গুরুত্ব তুলে ধরছে। সে দীর্ঘদিন ধরেই আমাদের একজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। আমাদের সেরা ফিল্ডারদের মধ্যেও অন্যতম। তাই দুটি ক্যাচ মিস হওয়ায় দলে তার অবদান খর্ব হচ্ছে না।’

তিনি বলেন, ‘অবশ্য ক্যাচ দুটো ধরতে পারলে ম্যাচের ফলাফল বদলে যেতে পারত। এ কারণেই লিটনকে নিয়ে এত সমালোচনা হচ্ছে। তবে তার প্রতি আমাদের সমর্থন আছে। লিটনের মান সম্পর্কে মনে করিয়ে দিচ্ছি এবং গুরুত্ব ও ভূমিকা বোঝাচ্ছি। তার জায়গায় অন্য খেলোয়াড় হলেও একই ঘটনা ঘটত। সে ফিল্ডিংয়ে আবারও দারুণ পারফর্ম করলে সমালোচনা বন্ধ হয়ে যাবে। কাল একটি ভালো ক্যাচ ধরলেই লিটনকে নিয়ে সবার ভাবনা বদলে যাবে।’

দলের পারফরম্যান্সের জন্য কোচিং প্যানেল ও টিম ম্যানেজমেন্টের সমালোচনা করেছেন মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। তবে এসব সমালোচনাকে গুরুত্ব দিচ্ছে না গিবসন। তিনি বলেন, ‘দলের বাইরে কী হচ্ছে এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মানুষ কী বলছে, তা আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবো না। তবে দলের ভেতরটা নিয়ন্ত্রণ করতে পারব। আমাদের আরও চারটি ম্যাচ বাকি।’

ইংল্যান্ড ম্যাচ ঘিরে এই কোচ বলেন, ‘আমরা ম্যাচের শেষ পর্যন্ত যদি তাদের প্রতি চ্যালেঞ্জ ধরে রাখতে পারি তাহলে আমরা ম্যাচটি জিতব। আমরা সবাই জানি ইংল্যান্ডের ব্যাটিং লাইনআপ বেশ শক্তিশালী। আমরা জানি তারা খুব শক্তিশালী হয়ে আসবে তবে তারা আমাদের সুযোগও দেবে। দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই। এটা মেনে নিতে হবে যে ভালো বল করলেও মার খাওয়া লাগতে পারে। এটাই তাদের মানসিকতা। কিন্তু তারা উইকেট ফেলারও সুযোগ দেবে। আমাদের শান্ত থাকতে হবে ও আমাদের পরিকল্পনামাফিক চলতে হবে।’

advertisement
advertisement