advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

শ্যালিকার বাড়ি থেকে ফেরার পথে মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে নিয়ে গিয়ে বিয়ে (ভিডিও)

অনলাইন ডেস্ক
২২ নভেম্বর ২০২১ ০১:২১ পিএম | আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০২১ ০১:৩৩ পিএম
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

শ্যালিকার বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলেন, ফেরার পথে রাস্তা থেকে যুবককে তুলে নিয়ে গিয়ে জোর করে বিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তার নাম নীতিশ কুমার। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বিহারের নালন্দা জেলার মানপুর থানার পারোহি গ্রামে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা বিয়ের খবর নিশ্চিত করে জানিয়েছে, নালন্দা জেলাতেই মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের বাড়ি।  আর ঘটনাচক্রে যে ব্যক্তিকে জোর করে বিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তার নামও নীতিশ কুমার। তিনি ধানুকি গ্রামের বাসিন্দা।

গত ১১ নভেম্বর সারবাহড়ি গ্রামে শ্যালিকার বাড়িতে গিয়েছিলেন নীতিশ। সেখান থেকে ফেরার পথে পারোহি গ্রামে এক দল লোক তাকে ঘিরে ধরেন। তারপর নীতিশের মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। কেন তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে প্রথমে বিষয়টি বুঝতে পারেননি নীতিশ। কিন্তু বিয়ের মণ্ডপে পৌঁছাতেই তার সন্দেহ হয়। এরপর জোর করে বিয়ের পিঁড়িতে বসানো হয় তাকে।

নীতিশ অভিযোগ করেন, আপত্তি জানালে বেধড়ক মারধর করা হয় তাকে। সারা রাত ধরে আটকে রাখা হয় বলে জানান তিনি। কোনো রকমে সেখান থেকে পালিয়ে থানায় হাজির হন নীতিশ। সেখানে একটি অভিযোগও দায়ের করেছেন তিনি।

মানপুর থানার এসএইচও জীতেন্দ্র কুমার জানান, ঘটনা সম্পর্কে শুনেছি। তদন্তের পর বিষয়টি স্পষ্ট হবে। ইতোমধ্যেই নীতিশকে জোর করে বিয়ে দেওয়ার সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিও দেখতে লিংকে ক্লিক করুন

advertisement
advertisement