advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

কারখানা বন্ধ ঘোষণায় মিরপুরে পোশাক শ্রমিকদের অবরোধ প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ নভেম্বর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৬ নভেম্বর ২০২১ ০২:৩৪ এএম
advertisement

বেতনভাতা বৃদ্ধিসহ কয়েকটি দাবি নিয়ে রাজধানীর মিরপুর এলাকায় বিক্ষোভরত পোশাক কারখানার শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নিয়েছেন। মিরপুর ১৩, ১৪ ও কচুক্ষেত এলাকার পোশাক কারখানাগুলো অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করায় গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে শ্রমিকরা রাস্তা ছেড়ে চলে যান। একই দাবিতে এর আগে গত বুধবার সড়ক অবরোধ করেন মিরপুরের বিভিন্ন পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। এর পর গতকাল সকাল ৮টা থেকে আবার সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন তারা। একপর্যায়ে মিরপুর ১৪ নম্বরে হা-মীম গ্রুপের একটি পোশাক কারখানা লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছোড়েন আন্দোলনরত শ্রমিকরা। ১৪ নম্বরের পথচারী-সেতুর নিচে অবস্থান নিয়ে তারা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে মিরপুর ১৩ ও ১৪ নম্বরে রাস্তায় পুলিশ অবস্থান নেয়।

গত বুধবার পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভের সময় মিরপুর ১০ নম্বর গোলচত্বরের ট্রাফিক পুলিশ বক্সে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। মিরপুর ১৪ নম্বরে নোটারি স্কুল অ্যান্ড কলেজের সামনে আওয়ামী লীগের একটি কার্যালয় ভাঙচুর ও কার্যালয়ের পাশে থাকা দুটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

ঢাকা মহানগর পুলিশের মিরপুর জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার মাহবুবুর রহমান জানান, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, পাঁচ শ্রমিককে মালিকপক্ষের মারধরের প্রতিবাদ ও বেতনভাতা বাড়ানোর দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বৃহস্পতিবার সকালে বিক্ষোভ করেছিলেন কয়েকটি কারখানার শ্রমিকরা। বেলা ১১টার দিকে তারা সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নেন। বুধবার পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনায় ছয়টি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে কাফরুল থানায় ৫টি এবং মিরপুর মডেল থানায় ১টি। এসব মামলায় আসামি করা হয়েছে অজ্ঞাতনামা ৭০০-৮০০ জনকে। অভিযুক্ত কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

advertisement
advertisement