advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement

জিনজিয়াংয়ের পর এবার হংকংয়ের দায়িত্বে চীনা জেনারেল পেং জিনত্যাং

অনলাইন ডেস্ক
১৮ জানুয়ারি ২০২২ ১০:০৪ এএম | আপডেট: ১৮ জানুয়ারি ২০২২ ১০:০৪ এএম
ছবি : সংগৃহীত
advertisement

হংকংয়ে অবস্থান করা চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) সেনাদলের নতুন কমান্ডার হিসেবে আধা সামরিক বাহিনীর সাবেক প্রধান পেং জিনত্যাংকে নিয়োগ দিয়েছে বেইজিং। পিএলএর মুখপাত্রের বরাত দিয়ে গত রোববার চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সিসিটিভি এই তথ্য জানিয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম জি-৫ ডটকম।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল পেং জিনত্যাং আগে চীনা আধা সামরিক পুলিশ বাহিনী পিপলস আর্মড পুলিশের ডেপুটি চিফ অব স্টাফের দায়িত্ব পালন করেন। চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং তার নিয়োগে স্বাক্ষর করার পর সেটি রাষ্ট্রীয় আদেশে পরিণত হবে বলে সিসিটিভির ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত দৈনিক গ্লোবাল টাইমসের প্রতিবেদন অনুসারে, পেং এর আগে জিনজিয়াংয়ে আর্মড পুলিশ ফোর্সের চিফ অব স্টাফ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ, জিনজিয়াংয়ে উইঘুর ও অন্যান্য মুসলিম গোষ্ঠীগুলোর ওপর গণহত্যা চালিয়েছে চীন। সামনে থেকে যার নেতৃত্ব দিয়েছেন পেং। তবে বেইজিং নিপীড়নের অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

চীনের আধা স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল হংকংয়ে দেশটির একটি সেনাদল মোতায়েন রয়েছে। তবে তাদের কার্যক্রমগুলো পরিচালিত হয় ছোট পরিসরে। বিশ্ব বাণিজ্যের কেন্দ্র হংকংয়ের সংবিধান অনুসারে মৌলিক আইন, প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্রের মতো বিষয়গুলোর নিয়ন্ত্রণ রয়েছে বেইজিংয়ের হাতে।

সিসিটিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী, হংকংয়ের সামরিক প্রধান হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর পেং বলেন, তিনি চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি ও প্রেসিডেন্ট জিনপিংয়ের আদেশ মেনে কাজ করবেন। তিনি জাতীয় সার্বভৌমত্ব ও নিরাপত্তা স্বার্থকে দৃঢ়ভাবে রক্ষা করবেন।

উল্লেখ্য, প্রত্যেকের ব্যক্তিগত অধিকার সুরক্ষার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১৯৯৭ সালে হংকংয়ের শাসনভার পায় চীন। কিন্তু গণতন্ত্রপন্থী অধিকারকর্মী এবং মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো বলছে, হংকংয়ের মানুষের অধিকার খর্ব হয়েছে। বিশেষ করে, ২০১৯ সালে গণতন্ত্রপন্থীদের সহিংস বিক্ষোভের মধ্যে চীন জাতীয় নিরাপত্তা আইন প্রণয়নের পর।