advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement

শুরু হচ্ছে ৩ ফেব্রুয়ারি প্রিমিয়ার লিগ সাত ভেন্যুতে

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৯ জানুয়ারি ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৮ জানুয়ারি ২০২২ ১১:৫৫ পিএম
advertisement

দেশের সাত ভেন্যুতে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। পূর্বনির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী আগামী ৩ ফেব্রুয়ারিই শুরু হচ্ছে এবারের আসর। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের সংস্কার কাজ চলমান রয়েছে। তাই আগে বলা হয়েছিল যে ঢাকার বাইরে ছয়টি ভেন্যুতে প্রিমিয়ার লিগের খেলা আয়োজন করা হবে। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) নির্ধারিত ওই ছয়টি ভেন্যুর সঙ্গে আরেকটি ভেন্যু যোগ হয়েছে। সেটি হলো- বসুন্ধরার স্পোর্টস কমপ্লেক্স। বসুন্ধরার স্পোর্টস কমপ্লেক্সটি ছাড়াও কুমিল্লার শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়াম, রাজশাহীর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্টেডিয়াম, মুন্সীগঞ্জের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ লে. মতিউর রহমান স্টেডিয়াম, গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়াম, টঙ্গীর শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টার স্টেডিয়াম ও সিলেট জেলা স্টেডিয়াম। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামকে আবাহনী নিজেদের হোম ভেন্যু হিসেবে বেছে নিয়েছে। বসুন্ধরা কিংস এবার নিজেদের মাঠে খেলবে। বাকি দলগুলোর হোম ভেন্যু সম্পর্কিত ঘোষণা কয়েক দিনের মধ্যেই আসবে। গতকাল বাফুফের পেশাদার লিগ কমিটির সভা ছিল। সেখানে এসব ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়েছে। বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী জানান, ‘ঢাকার বাইরে ছয়টি ভেন্যুর সঙ্গে এবার বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্স থাকছে। বাফুফের একটি প্রতিনিধি দল গিয়ে মাঠ, যাতায়াত ব্যবস্থা, প্রেস বক্স, গ্যালারিসহ যাবতীয় সবকিছু দেখেছে। কিছু কাজ বাকি রয়েছে- যা এ মাসেই শেষ হবে।’ কুমিল্লাকে ভেন্যু হিসেবে ঘোষণা করা হলেও সেখানে লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া এবার লিগের দলগুলোকে নিয়ে অনূর্ধ্ব-১৮ প্রতিযোগিতা হবে সিঙ্গল লিগ পদ্ধতিতে। এবারের প্রিমিয়ার লিগে বিদেশি রেফারি আনা হবে কিনা? এ প্রসঙ্গে সালাম মুর্শেদী বলেন, ‘দেশি রেফারি আমাদের তৈরি করতে হবে। দেশি রেফারিদের প্রতি আমাদের আস্থাও রাখতে হবে। সভাপতি মহোদয় (কাজী সালাউদ্দিন) যেহেতু বলেছেন, নিশ্চয়ই তিনি ভেবেচিন্তেই বলেছেন। বিদেশি রেফারির বিষয়টি ভাবা যেতে পারে।’

বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন বলেছিলেন, বিদেশি রেফারি এনে খেলা পরিচালনার কথা ভাববে বাফুফে। কেননা গত স্বাধীনতা কাপ ও ফেডারেশন কাপে রেফারিং নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কয়েকটি ক্লাব। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচগুলো বিদেশি রেফারির মাধ্যমে পরিচালনা করার দাবিও জানিয়েছে ক্লাবগুলো। অন্যদিকে নতুন মৌসুমের গত দুটি টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয়েছে কমলাপুরের টার্ফে। প্রিমিয়ার লিগের খেলা কমলাপুরে রাখা হয়নি। কমলাপুরের টার্ফে খেলবে না বলে ফেডারেশন কাপে অংশ নেয়নি বসুন্ধরা, মুক্তিযোদ্ধা ও বারিধারা ক্লাব। জাতীয় দলের ইন্দোনেশিয়া সফর বাতিল হওয়া একটু আগেভাগে প্রিমিয়ার লিগ শুরুর পরিকল্পনা ছিল বাফুফের। কিন্তু ক্লাবগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারছে না বাফুফে।

অর্থাৎ আগের নির্ধারিত সময়েই শুরু হতে যাচ্ছে দেশের ফুটবলের শীর্ষ টুর্নামেন্ট।