advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement

লকডাউনে জন্মদিনের পার্টিও করেছিলেন বরিস জনসন

অনলাইন ডেস্ক
২৫ জানুয়ারি ২০২২ ০২:৪৮ পিএম | আপডেট: ২৫ জানুয়ারি ২০২২ ০২:৪৮ পিএম
যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের সময় লকডাউন অমান্য করে মদের পার্টি করে সমালোচিত হয়েছিলেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এর জেরে তার পদত্যাগের দাবিও উঠেছিল। এবার তার বিরুদ্ধে জন্মদিনের পার্টি করারও অভিযোগ উঠেছে। ইতোমধ্যে সেই অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়েছে।

আইটিভি নিউজের বরাতে ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়, লকডাউনে সব ধরনের পার্টি নিষিদ্ধ থাকলেও ২০২০ সালের জুন মাসে জনসন জন্মদিনের পার্টি করেন। সেখানে ৩০ জন আমন্ত্রিত অতিথিও উপস্থিত ছিলেন। অতিথিদের জন্মদিনের কেক খাওয়ানো হয়। জন্মদিনের এই পার্টি যখন আয়োজন করা হয়েছিল, জনসন তখনো ক্যারি সাইমন্ডসকে বিয়ে করেননি। ক্যারিই ২০২০ সালের ১৯ জুন জনসনের ৫৬তম জন্মদিনের পার্টির আয়োজন করেন।

এই খবর প্রকাশ্যে আসার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর সেটি স্বীকার করেছে। তবে সন্ধ্যায় আরেকটি পার্টি করার অভিযোগ অস্বীকার করেছে বরিস জনসনের অফিস। ডাউনিং স্ট্রিট জানিয়েছে, বৈঠকের পর কর্মীরা সামান্য সময়ের জন্য সমবেত হয়েছিলেন। বরিস জনসন সেখানে ১০ মিনিটের মতো উপস্থিত ছিলেন।

আইটিভি বলছে, সে সময় লকডাউনের নিয়ম অনুযায়ী দুজনের বেশি একত্রিত হওয়া বারণ ছিল।

দুই সপ্তাহ আগে জনসন ‘নিজের মদ নিজে আনো’ পার্টির জন্য পার্লামেন্টে ক্ষমা চেয়েছেন। ২০২০ সালের ২০ মে এই পার্টি হয়েছিল। জনসন ভেবেছিলেন, ওই পার্টিটি আসলে তার কাজের অংশ। পরে জানা যায়, রানি এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপের অন্ত্যেষ্টির আগেও ডাউনিং স্ট্রিটের কর্মীরা দুটি আলাদা পার্টি করেছিলেন।