advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দেশকে দাস বানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৭ মে ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৭ মে ২০২২ ০৯:১৬ এএম
ফাইল ছবি
advertisement

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, আক্রমণ না করেই তার দেশকে দাস বানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। খবর এএনআইয়ের। রবিবার পাকিস্তানের ফয়সালাবাদ শহরে এক জনসভায় পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতা ইমরান এ কথা বলেন।

পাকিস্তানের বর্তমান সরকারকে ‘আমদানি’ করা সরকার হিসেবে অভিহিত করেন ইমরান। তিনি বলেন, পাকিস্তানের জনগণ কখনই এমন সরকার মেনে নেবে না। তার দাবি, তিনি যাতে ক্ষমতায় ফিরে আসতে না পারেন সে জন্য মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে অর্থ ভিক্ষা চাইবেন পাকিস্তানের বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো।

advertisement

ইমরান দাবি করেন, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে হতাশ করার সাহস দেখাবেন না বিলাওয়াল। কারণ বিলাওয়াল ও তার বাবা আসিফ আলি জারদারি বিশ্বের কোথায় কোথায় তাদের অর্থ লুকিয়ে রেখেছেন, তা মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানেন। পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান বলেন, মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন এই তথ্যগুলো সম্পর্কে অবগত। এ কারণেই বিলাওয়াল যুক্তরাষ্ট্রকে চটানোর সাহস করবেন না। তা হলে তিনি সবকিছু হারাবেন। বিরোধী জোটের আনা অনাস্থা প্রস্তাবে হেরে গত মাসে বিদায় নেয় ইমরানের নেতৃত্বাধীন সরকার।

ইমরান দাবি করেন, বিদেশি ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তার সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়েছে। এ জন্য তিনি যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেন। তবে এই অভিযোগ নাকচ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

ইমরান ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর জাতীয় সরকারের আদলে সরকার গঠন করে বিরোধী দলগুলো। এই সরকারের প্রধানমন্ত্রী হন পিএমএল-এনের সভাপতি শাহবাজ শরিফ।

ক্ষমতা হারানোর পর জাতীয় নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করার দাবি জানাচ্ছেন ইমরান। তা না হলে বর্তমান সরকারকে কঠিন পরিণতির মুখে পড়তে হবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।

 

advertisement