advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘বিনিয়োগের জন্য দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশ সর্বোত্তম’

স্পেন প্রতিনিধি
১৬ জুন ২০২২ ০৫:৪৬ পিএম | আপডেট: ১৬ জুন ২০২২ ০৬:০৬ পিএম
অর্থনৈতিক কূটনৈতিক সপ্তাহ পালিত। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ায় সর্বোত্তম স্থান বলে মন্তব্য করেছেন স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সরওয়ার মাহমুদ। দেশটিতে অফুরন্ত সম্ভাবনা থাকায় বিদেশি বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগে আহ্বান জানান তিনি।

গত মঙ্গলবার বাংলাদেশ দূতাবাস ও মাদ্রিদ চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রি অ্যান্ড সার্ভিসের যৌথ ব্যবস্থাপনায় প্রথম অর্থনৈতিক কূটনৈতিক সপ্তাহ কর্মসূচির অংশ হিসেবে সেমিনারে রাষ্ট্রদূত এ আহ্বান জানান।

দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর রেদোয়ান আহমেদের সঞ্চালনায় সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন মাদ্রিদ চেম্বার অব কমার্সের ভাইস প্রেসিডেন্ট আগুস্তো কাস্তানিয়াদা।

সেমিনার রাষ্ট্রদূত বলেন, স্পেন বাংলাদেশের চতুর্থ বৃহত্তম রপ্তানির দেশ। বাংলাদেশে ২০৩১ সালের মধ্যে উচ্চ-মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে উন্নত দেশে পরিণত হওয়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে। মাদ্রিদ ও বার্সেলোনায় বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় রপ্তানি পণ্যের বাজার সম্প্রসারণে দূতাবাস স্পেনীয় উদ্যোক্তাদের মাঝে ব্যাপক আগ্রহ জাগিয়েছে।

রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, স্পেনে বাংলাদেশের রপ্তানি পণ্যের ৯৫ শতাংশই তৈরি পোশাক। স্পেনে তৈরি পোশাক ছাড়াও বাংলাদেশের রপ্তানি পণ্যের বৈচিত্র্য বাড়ানোর সম্ভাবনা রয়েছে। অর্থনৈতিক কূটনীতিকে আরও বেগবান করতে দূতাবাসের নানামুখী সৃজনশীল প্রয়াস অব্যাহত রখেছে।

সেমিনারে কি নোট উপস্থাপনা করেন বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিআইডিএ) আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ সম্প্রসারণ বিভাগের মহাপরিচালক শাহ মোহাম্মদ মাহবুব। তিনি আর্থ সামাজিক প্রতিটি সূচকে বাংলাদেশের অর্জিত অগ্রগতি তুলে ধরেন।

বাংলাদেশের ১০১টি ইকোনমি জোন ও ৩৯টি হাই-টেক পার্কে বৈদেশিক বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ ও সরকার ঘোষিত আকর্ষণীয় প্রণোদনা প্যাকেজের সুবিধা গ্রহণে স্পেনীয় উদ্যোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানান মোহাম্মদ সরওয়ার মাহমুদ।

স্পেনের উদ্যোক্তা, ব্যবসায়ী নেতা ও গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে সেমিনারটি প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। সেমিনারটি অনলাইনে জুম প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারিত হয় এবং সেখানেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ব্যবসায়ী অংশগ্রহণ করেন।