advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনীতে যাবেন শরীয়তপুর আ.লীগের ২ লাখ নেতাকর্মী

শরীয়তপুর প্রতিনিধি
২৩ জুন ২০২২ ০৯:২৩ পিএম | আপডেট: ২৪ জুন ২০২২ ০২:১১ পিএম
পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী মঞ্চ। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

আগামী ২৫ জুন দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের স্বপ্নের পদ্মাসেতুর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ উপলক্ষে পদ্মা সেতুর শরীয়তপুর জাজিরা প্রান্তসংলগ্ন মাদারীপুরের শিবচরের কাঁঠালবাড়ি ঘাটে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিশাল জনসভার আয়োজন করা হয়েছে। এ জনসভায় প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু জানিয়েছেন, জনসভা সফল করতে শরীয়তপুরের জেলা শহর ও ছয়টি উপজেলা থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের প্রায় দুই লাখ নেতা-কর্মী যোগ দেবেন।

পদ্মাসেতুর জাজিরা প্রান্ত থেকে শরীয়তপুরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ও সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষেে আয়োজিত জনসভায় আগমনকে ঘিরে বর্ণিল রূপে সেজেছে শরীয়তপুর শহরসহ ছয়টি উপজেলা। এ ছাড়া শরীয়তপুরে বইছে উৎসবের আমেজ।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন ও মাদারীপুরের শিবচরের বাংলাবাজার ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী (দাদা ভাই) ফেরিঘাট এলাকায় জনসভাকে সফল করার লক্ষ্যে শরীয়তপুরে রং-বেরঙের কয়েক হাজার ব্যানার-ফেস্টুন, বিলবোর্ড ও শরীয়তপুর-ঢাকা এবং শরীয়তপুর-চাঁদপুর সড়কসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে সহাস্রাধিক তোরণ তৈরি করেছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। ওই জনসভায় দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার প্রায় ১০ লক্ষাধিক মানুষের সমাগম হবে। এরই ধারাবাহিকতায় শরীয়তপুর থেকে প্রায় দুই লাখ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে রঙিন গেঞ্জি ও টুপি পরে সমাবেশস্থলে যাবে।

শরিয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপুর নেতৃত্বে শরীয়তপুর জেলা সদর এবং জাজিরা থেকে প্রায় ৫০টি বাস, ৭ হাজার মোটরসাইকেল এবং শতাধিক ট্রাক নিয়ে এক লাখ নেতাকর্মীরা জনসভায় যাবে। ২৫ জুন সকাল ৬ টায় শরীয়তপুর থেকে নেতাকর্মী নিয়ে জনসভার উদ্দেশে রওনা করবেন ইকবাল হোসেন অপু। নেতাকর্মীদের খাবারের ব্যবস্থা করেছেন তিনি।

শরীয়তপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীমের নির্দেশনায় এবং ব্যবস্থাপনায় শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলা ও সখিপুর থানা থেকে ১৬টি বিলাসবহুল লঞ্চ ও পাল তোলা নৌকাসহ ৩০০ ট্রলারে প্রায় ৫০ হাজার নেতাকর্মী রঙিন গেঞ্জি ও টুপি পরে সকাল ৮টার মধ্যেই জনসভাস্থলে থাকবেন। নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাস্টার হাসানুজ্জামান খোকন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করেছেন উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম।

এ ছাড়াও শরীয়তপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাকের নেতৃত্বে গোসাইরহাট, ডামুড্যা, ভেদরগঞ্জ উপজেলা ছয়টি বিলাসবহুল লঞ্চ ও ৫০টি বাস এবং ট্রাক নিয়ে সকাল ৬টার মধ্যেই পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী জনসভায় প্রায় ৫০ হাজার নেতাকর্মী রঙিন গেঞ্জি ও টুপি পরে অংশগ্রহন করবেন। তাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করেছেন তিনি।