advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

গুরুদাসপুরে বেতনভাতাসহ শিক্ষা সনদপত্র আটকে রাখার অভিযোগ

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি
২৪ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৩ জুন ২০২২ ১১:০৬ পিএম
advertisement

নাটোরের গুরুদাসপুরে চাকরি থেকে অব্যাহতি নেওয়ার তিন মাস পেরিয়ে গেলেও সুপ্রকাশ পাল নামের একজন কর্মীর বেতনভাতার আট লাখ টাকা পরিশোধ না করাসহ মূল শিক্ষা সনদ ও নম্বরপত্র আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সিধুলাই স্বনির্ভর সংস্থার নির্বাহী পরিচালক আবুল হাসানাত মোহাম্মদ রেজোয়ানের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক ও মানবাধিকার কমিশনে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন ওই ভুক্তভোগী সুপ্রকাশ পাল।

advertisement

সূত্র জানায়, সর্বশেষ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার লাহিড়ী মোহনপুর আঞ্চলিক অফিসে ম্যানেজার (অ্যাকাউন্টস) পদে দায়িত্ব পালন করছেন সুপ্রকাশ পাল। চলতি বছরের ২৭ মার্চ গুরুদাসপুর প্রকল্প কার্যালয়ে অব্যাহতিপত্রটি জমা দেন তিনি। কিন্তু অব্যাহতিপত্র জমা দেওয়ার পরও তার বকেয়া থাকা বেতনভাতার আট লক্ষাধিক টাকা পরিশোধ করা হয়নি। এমনকি ফেরত দেওয়া হচ্ছে না মূল শিক্ষাসনদ ও নম্বরপত্রগুলো।

সুপ্রকাশ পালের ভাষ্য, অব্যাহতিপত্র জমা দেওয়ার তিন মাস অতিবাহিত হলেও বেতনভাতার আট লক্ষাধিক টাকা পরিশোধ করছেন না সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক। এ ছাড়া শিক্ষার মূল সনদপত্রগুলো আটকে রাখায় অন্যত্র চাকরির আবেদনও করতে পারছেন না। ফলে অমানবিক জীবনযাপন করছেন তিনি।

এ ব্যাপারে জানাতে সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক আবুল হাসানাত মোহাম্মদ রেজোয়ানের বক্তব্য নিতে তার মুঠোফোনে কল ও খুদেবার্তা পাঠিয়েও তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

advertisement