advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

আড়াই মাসেই ফুরাবে জার্মানির গ্যাস!

অনলাইন ডেস্ক
২৪ জুন ২০২২ ০৬:৪১ পিএম | আপডেট: ২৪ জুন ২০২২ ০৬:৪১ পিএম
ছবি : রয়টার্স
advertisement

জার্মান প্রশাসনের কপালে চিন্তার ভাঁজ। আর মাত্র আড়াই মাস চলার মতো গ্যাস আছে দেশটির কাছে। রাশিয়ার কাছ থেকে গ্যাস না পেলে বিপাকে পড়বে জার্মানি। এই অবস্থায় সেখানে গ্যাসের দাম তিনগুণ পর্যন্ত বেড়ে যেতে পারে। আজ শুক্রবার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বৃহস্পতিবার দেশটিতে গ্যাস কিনতে যে বাড়তি দাম দিতে হয়েছে তা ক্রেতাদের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে।

advertisement

ফেডারেল নেটওয়ার্ক এজেন্সির প্রধান মুলার বলেন, যদি জার্মানির কাছে গ্যাসের পুরো সঞ্চয় থাকতো, তাহলে রাশিয়ার গ্যাসের ওপর এখন নির্ভর করতে হতো না। কিন্তু হাতে মাত্র আড়াই মাস চলার মতো গ্যাস আছে। তারপরই ট্যাংকগুলো সব খালি হয়ে যাবে। জার্মানিকে গ্যাস বাঁচাতে হবে এবং অন্য স্থান থেকে গ্যাস আনার ব্যবস্থা করতে হবে বলে জানান তিনি।

এর আগে বৃহস্পতিবার থেকে জরুরি গ্যাস পরিকল্পনার দ্বিতীয় পর্বে প্রবেশ করে জার্মানি। সেখানে সরবরাহকারীদের ক্রেতাদের কাছ থেকে বাড়তি দাম নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়।

মুলার বলেন, যদি জার্মানিকে এই পরিকল্পনার তৃতীয় পর্যায় রূপায়ন করতে হয়, তাহলে ভয়ঙ্কর পরিণতি হবে। তখন গ্যাস রেশন করা হবে, প্রয়োজনভিত্তিক অগ্রাধিকার দিতে হবে।

জার্মানি এবং অন্য ইউরোপীয় দেশগুলো রাশিয়া থেকে তেল আমদানি করা নিয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। কিন্তু বার্লিন এখনো রাশিয়া থেকে গ্যাস আমদানি বন্ধ করেনি। নিষেধাজ্ঞাও জারি করেনি।

রাশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা গ্যাজপ্রোম জানিয়েছে, নর্ড স্ট্রিমের মাধ্যমে তারা জার্মানিকে যে গ্যাস দেয়, তার সরবরাহ আরো কমিয়ে দেওয়া হবে। তারা ফ্রান্স, ইতালিকেও কম গ্যাস দিচ্ছে। জার্মানি সম্প্রতি কাতার থেকে গ্যাস আনার জন্য চুক্তি করেছে।

advertisement