advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সা ক্ষাৎ কা র
‘বাঙালি চ্যালেঞ্জ জিতেছে আমি ভীষণ আনন্দিত’

তারেক আনন্দ
২৮ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৭ জুন ২০২২ ১০:২৫ পিএম
advertisement

আকাশ মাহমুদ। তাকে এখন সবাই চেনেন পদ্মা সেতুর আকাশ মাহমুদ নামে। পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক গান প্রকাশ হলেও প্রথম গান প্রকাশ হয় তার কণ্ঠেই। শুধু প্রথম গানই নয়, একে একে প্রকাশ করেন ছয়টি গান। পদ্মা সেতু নিয়ে গান করার প্রসঙ্গে কথা হয় এই গায়কের সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেনÑ তারেক আনন্দ

advertisement 3

advertisement 4

পদ্মা সেতু নিয়ে প্রথম গান আপনি করেন। এই ভাবনা ভেতরে কীভাবে হলো?

পদ্মা সেতু বাংলাদেশের একটি বিস্ময়! রাষ্ট্রের নাগরিক হিসেবে এটি আমার জন্য অনেক আনন্দের! মনে হলো এর জন্য আমি কী করতে পারি? যেহেতু আমি গান গাই তা হলে একটি গান গাইতে পারি! সেই ভাবনা থেকে মজিদ মোড়ল কাকার কথা সুরে প্রথম পদ্মা সেতু করিব নির্মাণ শিরোনামের গানটি করি

একে একে ছয়টি গান করলেন পদ্মা সেতু নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন চিন্তায়। একের পর এক গান করার উদ্দেশ্য কী ছিল?

বিশ্বব্যাংক যখন আমাদের ঋণ দেবে না বলেছিল এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যখন বলেছিলেন পদ্মা সেতু হবে আমাদের নিজেদের অর্থায়নে তখন মনে হয়েছিল আরেকটি গান দরকার যেটা সবাইকে অনুপ্রাণিত করতে পারে। সেই ধারণা থেকে পদ্মা সেতু নিয়ে দুটি গান করা। এরপর পদ্মা সেতু দৃশ্যমান হওয়ার পর আরেকটি এভাবে পর্যায়ক্রমে গানগুলো করা।

অবশেষে স্বপ্নের সেতুর উদ্বোধন হলো। এখন কেমন লাগছে আপনার?

আমি ভীষণ আনন্দিত। বাঙালি চ্যালেঞ্জ জিতেছে সে আনন্দে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন গান মুক্তি দিয়ে দিয়েছি আমার বাবা জাকির মাস্টারের কথায় !

সবগুলো গানের কথা তা হলে আপনার বাবার লেখা? আপনার বাবা নিশ্চয়ই অনেক খুশি হয়েছেন?

আব্বু তো অবশ্যই খুশি। কারণ আকাশ মাহমুদ নামটার পেছনে দুজন ব্যক্তির সব থেকে বেশি অবদান। এক আমার আব্বু জাকির মাস্টার দুই আমার বড় ভাই আশিক মাহমুদ। আমার পুরো পরিবার আমাকে আমার গানের খুব সাপোর্ট করে তাই তারা সবাই খুশি। পদ্মা সেতুর গানের মধ্যে প্রথম চারটি গান মজিদ মোড়লের লেখা এবং পরের দুটি গান আমার আব্বু জাকির মাস্টারের লেখা।

পদ্মা সেতুর গান করার কারণে আপনাকে অনেকে পদ্মা সেতুর আকাশ নামে চেনেন। এটা কেমন লাগে?

এটা ভীষণ ভালো লাগে। কারণ এত বড় একটা স্থাপনার সাথে দর্শক আমার নাম জড়িয়েছে দেখে ভীষণ আনন্দ হয়।

পদ্মা সেতুর অনুষ্ঠানে আপনি দাওয়াত পাননি। না পাওয়ার আক্ষেপ দেখা গেছে আপনার মাঝে। সেই আক্ষেপ নিয়েই সর্বশেষ গান গতকাল প্রকাশ করলেন। আক্ষেপ ও শেষ গানটি নিয়ে আপনার মন্তব্য জানতে চাই।

আসলে এটা নিয়ে আমার কোনো আক্ষেপ নেই! দেশকে ভালোবেসে পদ্মা সেতুর গান গেয়েছি এবং তাতে দর্শকদের কাছ থেকে অনেক অনেক ভালোবাসা পেয়েছি, যা বলে বোঝানোর মতন নয়। এতেই আমি সন্তুষ্ট। সর্বশেষ গানটাও ভালোবাসা থেকেই করেছি। আক্ষেপ থেকে নয়।

নতুন গানটার সাড়া কেমন পাচ্ছেন?

অনেক সাড়া পাচ্ছি। এখন পর্যন্ত ১১ ঘণ্টায় আমার ফেসবুক পেজে ৪ লাখ এবং আমার ইউটিউব চ্যানেলে প্রায় ৫ লাখ মানুষ দেখেছে। অসংখ্য ফোন পাচ্ছি, অসংখ্য মেসেজ সব মিলিয়ে খুব ভালো সাড়া পাচ্ছি গানটা থেকে।

ঈদে নতুন কোনো গান প্রকাশ হচ্ছে?

ঈদ উপলক্ষে প্রকাশ হচ্ছে তিনটি নতুন গান।

advertisement