advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পটিয়া কওমী মাদ্রাসার নতুন মহাপরিচালক ওবায়দুল্লাহ

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি
৭ জুলাই ২০২২ ০৭:৪৯ পিএম | আপডেট: ৭ জুলাই ২০২২ ০৭:৪৯ পিএম
ওবায়দুল্লাহ হামযাহ। পুরোনো ছবি
advertisement

দেশের বৃহত্তম কওমি মাদ্রাসা চট্টগ্রামের আল-জামিয়া আল-ইসলামিয়া জমিরিয়া কাসেমুল উলুম পটিয়া মাদ্রাসার মহা-পরিচালিক হিসেবে দায়িত্ব পেলেন আল্লামা ওবায়দুল্লাহ হামযাহ।

আজ বৃহস্পতিবার বিকালে মজলিসে শূরার বৈঠক শেষে মহাপরিচালক হিসেবে ওবায়দুল্লাহ হামযাহ’র নাম ঘোষনা করা হয়। এ সময় উপ-মহাপরিচালক মওলানা আমিনুল হক ও সহকারী মহা-পরিচালক আল্লামা আবু তাহের নদভীর নাম ঘোষণা করা হয়। 

advertisement

বৈঠকে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও পটিয়ার সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী। মজলিসে শূরার সদস্য ও কওমি শিক্ষাবোর্ডের সভাপতি আল্লামা সুলতান নদভীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন শাইখুল হাদিস আল্লামা হাফেজ আহমদুল্লাহ, আল্লামা আমীনুল হক, আল্লামা আবু তাহের নদভী, আল্লামা জসীমুদ্দিন কাসেমি, আল্লামা ফোরকানুল্লাহ খলিল, আল্লামা আবদুল হক হক্কানী, আল্লামা মুফতি আবদুল কাদের, আল্লামা এমদাদুল্লাহ নানুপুরী, আল্লামা মুসলিম কক্সবাজার, আল্লামা মুফতি কেফায়তুল্লাহ শরীফ, আল্লামা দলীলুর রহমান, আল্লামা আফজলুর রহমান শর্শদী, আল্লামা মাকসুদুর রহমান, মুফতি হাসান মুরাদাবাদি, মাওলানা আমানুল্লাহ। 

উল্লেখ্য, গত ২১ জুন উক্ত মাদ্রাসার মহা-পরিচালক আবদুল হালিম বোখারী মারা গেলে তার জানাযায় মাদ্রাসার শাইখুল হাদিস আল্লামা হাফেজ ওবায়দুল্লাহ হামযাকে ভারপ্রাপ্ত মহা-পরিচালক হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

নতুন মহাপরিচালিক আল্লামা ওবায়দুল্লাহ হামযাহ জানিয়েছেন, এ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান উপমহাদেশের দ্বীন ইসলাম প্রচার ও প্রসারে ভূমিকা রেখে এসেছে। আগামীতে তার ধারাবাহিকতা রক্ষা করে আধুনিক ও ডিজিটাল শিক্ষার মধ্য দিয়ে ভূমিকা চলমান থাকবে।

ওবায়দুল্লাহ হামযাহ ১৯৯৪ সাল থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত সৌদিআরবের ধর্ম ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধিনে শিক্ষক ও অনুবাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০১ সাল থেকে তিনি আল-জামিয়া আল-ইসলামিয়া পটিয়ায় সিনিয়র শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। দীর্ঘ ২০ বছর ধরে তিনি শিক্ষকতা করছেন। তার বাড়ি কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলায়।

advertisement