advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্বপ্নপূরণ হতে যাচ্ছে কুয়েত প্রবাসীদের

সাদেক রিপন,কুয়েত
২৭ জুলাই ২০২২ ০৫:৪০ পিএম | আপডেট: ২৭ জুলাই ২০২২ ০৫:৪০ পিএম
কুয়েত দূতাবাস। প্রতীকী ছবি
advertisement

কুয়েত প্রবাসী বাংলাদেশিদের দীর্ঘদিনের দাবি স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র। এর মাধ্যমে প্রবাসীরা ২২টি নাগরিক সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। অবশেষে কুয়েত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সেই স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে।

সম্প্রতি কুয়েতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের বহু প্রত্যাশিত স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়ার লক্ষে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাংলাদেশ দূতাবাস কুয়েতের ফেসবুক পেইজে প্রথম সচিস দূতালয় প্রধান নিয়াজ মোর্শেদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

advertisement

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দূতাবাসের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং বাংলাদেশ থেকে নির্বাচন কমিশনের রেজিস্ট্রেশন টিম এনআইডি প্রদান সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করবে। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের রেজিস্ট্রেশন টিম তিন সপ্তাহ কুয়েতে অবস্থান করবে। যে সকল কুয়েত প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তারা অনলাইন ও অফলাইন দুভাবে আবেদন করার সুযোগ রয়েছে। বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে আবেদন করতে পারবেন তারা। দূতাবাস অফিস প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও তথ্যাদি দিয়ে ফরম পূরণের মাধ্যমেও আবেদন করতে পারবেন।

অনলাইন ও অফলাইনের মাধ্যমে স্মার্ট জাতীয় পরিচয় পত্রের আবেদনে ক্ষেত্রে যে সকল কাগজপত্র লাগবে তা হলো- অনলাইন জন্মসনদ কপি, বৈধ বাংলাদেশি পাসপোর্ট কপি, ইউনিয়ন অথবা পৌরসভার হতে নাগরিক সনদ, ইউটিলিটি বিলের কপি (বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানি, টেলিফোন) বিলের কপি, শিক্ষাগত যোগ্যতা সনদ যদি থাকে। পিতা, মাতা, স্বামী, স্ত্রীর জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর।

স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তির জন্য আবেদনকারীর নামের তালিকা দূতাবাসের ফেসবুক পেইজ ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। এছাড়াও কুয়েতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের কি পরিমাণ জাতীয় পরিচয়পত্র প্রয়োজন তা নির্ধারনের জন্য দূতাবাস অনলাইন নিবন্ধন প্রদক্ষেপ গ্রহন করেছে।

এ বিষয়ে কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশিকুজ্জামান জানান, স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য এনআইডি অত্যন্ত জরুরি। এনআইডি পেলে প্রবাসীরা ২২টি নাগরিক সেবা গ্রহন করতে পারবেন। সব কিছু ঠিক থাকলে সেপ্টেম্বরে এনআইডি কার্যক্রম শুরু করতে পারবে। 

আবেদন প্রক্রিয়ার বিষয়ে তিনি জানান, আবেদন প্রক্রিয়া প্রবাসীরা অনলাইন ও অফলাইন দুইভাবে করতে পারবে। আবেদেনের তালিকা অনুসারে এনআইডি প্রদান কার্যক্রম চলবে। প্রবাসীদের স্মার্ট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান করতে বাংলাদেশ দূতাবাস ইতোমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

সম্প্রতি কুয়েত দূতাবাস কর্তৃক ‘এনআইডি’ প্রত্যাশীদের জন্য নিবন্ধন প্রক্রিয়ার একটি বিজ্ঞপ্তি দেখে উচ্ছ্বসিত হয়েছেন প্রবাসীরা।

advertisement