advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মমতার ‘দুর্দিনে’ মোদির সঙ্গে বৈঠক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
৬ আগস্ট ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ৬ আগস্ট ২০২২ ১০:২৩ এএম
advertisement

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গতকাল শুক্রবার ভারতের রাজধানী দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করেছেন। পণ্যমূল্য ও জরুরি পরিষেবার করসহ আরও বেশ কিছু বিষয় নিয়ে তারা আলোচনা করেন। কিন্তু এই বৈঠক নিয়ে নানা মহলে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। কেননা মমতা এমন সময় মোদির সঙ্গে দেখা করতে গেলেন যখন তার মন্ত্রী (বরখাস্ত) পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে আটক করেছে ভারতের নিরাপত্তা সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। খবর এনডিটিভির।

খবরে বলা হয়, চলতি বছর জুন মাসে মুখ্যমন্ত্রী মমতার প্রধান উপদেষ্টা অমিত মিত্র অভিযোগ করেছিলেন- রাজ্যগুলোর ২৭ হাজার কোটি রুপির বকেয়া দীর্ঘদিন থেকে পরিশোধ করছে না। পশ্চিমবঙ্গের সরকার ধারাবাহিকভাবে একের পর এক কেন্দ্রীয় সরকারকে অভিযোগ করে আসছে যে- কেন্দ্র জিএসটি নিয়মিত পরিশোধ করছে না, বিশেষ করে বিরোধী দল শাসিত রাজ্যগুলোতে বকেয়া মেয়াদ আরও দীর্ঘ হচ্ছে।

advertisement

ভারতের বর্তমান রাজনীতিতে মোদি-মমতার দ্বন্দ্ব বেশ প্রকট হয়ে উঠেছে। কিছু মহল বলতে শুরু করছে, আগামী নির্বাচনে বিরোধী জোটের প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী হতে পারেন মমতা। এমন টানাপড়নের মধ্যেই গতকাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক করলেন। সম্প্রতি মমতার ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত ও সাবেক মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তারের পরই এই বৈঠক চলমান জল্পনাকে আরও বাড়িয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছর নরেন্দ্র মোদির আহ্বানে কাউন্সিরের বৈঠক এড়িয়ে গেছেন মমতা।

উল্লেখ্য, চার দিনের সফরে গতকাল দিল্লি গেছেন মমতা। প্রধানমন্ত্রী মোদির পর দেশটির প্রেসিডেন্ট দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গেও বৈঠক করবেন তিনি। এ ছাড়া দিল্লিতে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের সঙ্গেও বৈঠক করবেন মমতা।

 

advertisement