advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দুই চোখ উপড়ানোর পর স্কুলছাত্রীকে হত্যা

বরিশাল ব্যুরো
৬ আগস্ট ২০২২ ০৫:১৫ পিএম | আপডেট: ৬ আগস্ট ২০২২ ০৫:১৫ পিএম
আখিনুর বেগম। ছবি: সংগৃহীত
advertisement

বরিশালের মুলাদীতে খাল থেকে উদ্ধার হওয়া দুই চোখ উপড়ানো ও শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাত থাকা অজ্ঞাত কিশোরীর মরদেহের পরিচয় মিলেছে। তার নাম আখিনুর বেগম (১৪)।

গতকাল শুক্রবার স্বজনরা তার পরিচয় শনাক্ত করেন বলে জানান মুলাদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাকসুদুর রহমান।

advertisement

তিনি জানান, গত বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) উদ্ধার হওয়া মরদেহটি স্কুলছাত্রী আখিনুর বেগমের। সে মুলাদী উপজেলার গাছুয়া ইউনিয়নের পূর্ব হোসনাবাদ গ্রামের মো. শাহে আলম হাওলাদারের মেয়ে। স্থানীয় চরপৈক্ষা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণিতে পড়তো।

আখিনুনের ভাই আবুল কালাম জানান, গত মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) সকালে উপজেলার গাছুয়া ইউনিয়নের পূর্ব হোসনাবাদ এলাকায় খালাতো বোন হালিমা বেগমের বাড়িতে বেড়াতে যায় আখিনুর। এরপর গত বুধবার (৪ আগস্ট) বিকেল ৪টায় প্রাইভেট পড়ার কথা বলে খালাতো বোনের বাড়ি থেকে বের হয় আখিনুর। কিন্তু বাড়িতে না ফেরায় বুধবার খালাতো বোনকে ফোন করে বাবা তার খবর জানতে চান। তখন খালাতো বোন জানান, আখিনুর মঙ্গলবার বিকেলে চলে গেছে। এরপর থেকে তার কোন সন্ধান পাইনি। 

তিনি আরও জানান, বাড়িতে মা-বাবা ও ছোট বোন আখিনুর থাকতো। বাবার থেকে জানতে পারি, এলাকার একটি ছেলে প্রেম নিবেদন করে আখিনুরকে উত্যক্ত করতো এবং মোবাইল ফোনেও বিরক্ত করতো। তাই এ হত্যাকাণ্ডে সেই ছেলে জড়িত থাকতে পারে।

মুলাদী থানার ওসি জানান, আখিনুরের মোবাইল ফোনের কল ট্রাকিং করে একই এলাকার সন্দেহভাজন তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

তিনি আরও জানান, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে হোসনাবাদ সিকদার বাড়ির সামনের খালে ব্রিজের নিচ থেকে আখিনুরের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সুরতহাল প্রস্তুতকারী মুলাদী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান জানান, কিশোরীর দুই চোখ খুচিয়ে বের করে নেওয়া হয়েছে। মাথার সামনের দুই পাশ, ঘাড় ও নাকের উপর ও নিচে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে।

 

 

advertisement